বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম ২০২২

আপনি কি বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম করতে চান ? তাহলে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য ।

বর্তমান সময়ে আমরা সবাই মোবাইল ব্যবহার করি। আর এই মোবাইল দিয়ে আমরা অযথা সময় নষ্ট করি।

অথচ আপনি এই মোবাইল দিয়ে আপনি প্রতি মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন খুব সহজে কোন ধরনের ঝামেলা ছাড়া। তাও আবার বাংলাদেশি অ্যাপ থেকে এবং পেমেন্ট আপনি বিকাশ বা রকেট বা নগদে নিতে পারবেন খুব সহজে।

তাই আজ আমি এমন কিছু উপায় বলব যা দ্বারা আপনি বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন । আর এই app গুলো প্রত্যেকটি নির্ভরযোগ্য এবং ট্রাস্টেড। চলুন আলোচনা শুরু করা যাক ।

বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম 2022

আমি এখানে এমন ৭টি অ্যাপ সম্পর্কে আলোচনা করব সেগুলো প্রত্যেকটি ট্রাস্টেড । এখান থেকে আপনি ১০০% ইনকাম করতে পারবেন। প্রতি মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন । তাই বসে না থেকে আজ-ই এই কাজটি শুরু করে দিন।

১. বিকাশ অ্যাপ দিয়ে ইনকাম

বর্তমান সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং হচ্ছে বিকাশ। সকলের কাছে প্রিয়। আপনি এখান থেকে খুব সহজে ইনকাম করতে পারবেন। সেটা হল রেফার করে।

কাজ করার সিস্টেম : অবশ্যই আপনার বিকাশ একাউন্ট থাকতে হবে। তারপর একটি অ্যাপ থাকতে হবে। সেখানে একটি রেফারেল কোর্ড পাবেন।

এরপর আপনার আত্মীয়-স্বজন , আশপাশের লোকদেরকে যদি আপনি আপনার রেফার এর মাধ্যমে বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করাতে পারেন ।

তাহলে বিকাশ কোম্পানি আপনাকে রেফার এর মাধ্যমে ভালো পরিমাণ টাকা দিবে। সুতরাং আপনি প্রতিদিন বিকাশ থেকে ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম

২. বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম হলো সেবা দেলিভেরি অ্যাপ দিয়ে ইনকাম করা

এই অ্যাপটি অনেক চমৎকার। এই অ্যাপে বাংলাদেশের যে কেউ কাজ করতে পারবে। এই অ্যাপে সবচেয়ে যে জিনিসটি দিয়ে আপনি ইনকাম করতে পারবেন সেটা হল ডেলিভারি করে।

তবে বর্তমানের নতুন নতুন অনেক ফিচার আনছে। সেখান থেকেও ইনকাম করতে পারবেন।

কাজ করার নিয়ম নীতি :

  • এই অ্যাপ এ কাজ করার জন্য অবশ্যই আপনাকে ১৮ বছরের উপরে হতে হবে। অন্যথায় আপনি এখানে কাজ করতে পারবেন না।
  • এই অ্যাপ এ কাজ করার জন্য অবশ্যই আপনার ভালো একটি স্মার্টফোন থাকতে হবে।
  • ডেলিভারি করার জন্য একটি বাহন থাকতে হবে। চাই সেটা হোন্ডা হোক অথবা সাইকেল হোক।
  • যদি হুন্ডা হয় তাহলে অবশ্যই আপনার লাইসেন্স লাগবে
  • অথবা পায়ে হেঁটেও আপনি ডেলিভারি করতে পারবেন।

অতএব এই অ্যাপটি অনেক চমৎকার একটি ইনকাম করার জন্য।

৩. বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম হলো নগদ অ্যাপ দিয়ে ইনকাম করা

নগদ অ্যাপে আপনি বিকাশ এর মত খুব সহজেই ইনকাম করতে পারবেন।

অর্থাৎ আপনার আশপাশে এবং বন্ধুদেরকে রেফার করিয়ে খুব সহজেই প্রতিদিন ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন এই নগদ অ্যাপ থেকে।

কাজ করার নিয়ম : আপনার একটি নগদ একাউন্ট থাকতে হবে। তারপর একটি অ্যাপ থাকতে হবে।

সেখানে আপনি রেফারেল কোড পেয়ে যাবেন। এই কোর্ডটি বন্ধুদেরকে শেয়ার করে জয়েন করাবেন। তাহলে খুব সহজে ইনকাম করতে পারবেন।

৪. বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম হলো পাঠাও অ্যাপ দিয়ে ইনকাম করা

এই অ্যাপটি অনেক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। এটা মূলত বাংলাদেশীদের সুবিধার চিন্তা করে তৈরি করা হয়েছে।

ডেলিভারি করে ইনকাম করতে পারবেন এবং রাইডিং করে ইনকাম করতে পারবেন। পাশাপাশি আরো নানান ভাবে ইনকাম করতে পারবেন এই অ্যাপের মাধ্যমে।

পাঠাও অ্যাপ এ কাজ করার নিয়ম :

  • এখানে কাজ করার জন্য অবশ্যই আপনাকে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে
  • এবং বাইক অথবা গাড়ির জন্য লাইসেন্স জমা দিতে হবে।
  • হেলমেট সহ আরো নানা জিনিস থাকতে হবে।

আপনি যদি এখানে নিয়মিত কাজ করেন তাহলে প্রতিদিন ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

বর্তমানে অধিকাংশ মানুষ এই পেশা অবলম্বন করছে। অতএব আপনিও এই পেশা শুরু করতে পারেন।

৫. বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম হলো Uber অ্যাপ দিয়ে ইনকাম করা

এখান থেকে আপনি ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এখানে মূলত রাইডিং করে ইনকাম করা হয়।

অর্থাৎ এই অ্যাপসে মোটরসাইকেল থেকে শুরু করে সিএনজি ইত্যাদি নানান গাড়ি ভাড়া করা হয়।

অতএব আপনি মোটরসাইকেল অথবা সিএনজি যেটাই পারদর্শী সেটা চালিয়ে প্যাসেঞ্জার বহন করতে পারেন।

মোট কথা : এখন থেকে রাইডার হিসেবে ইনকাম করতে পারবেন।

এখানে কাজ করার নিয়ম :

  • অবশ্যই আপনাকে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।
  • ড্রাইভিং লাইসেন্স লাগবে।
  • গাড়ির লাইসেন্স লাগবে।
  • ভালো অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

Uber এটা আন্তর্জাতিক ভাবে তৈরি করা হয়েছে।

আরো পড়ুন :

৬. বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম হলো ফুড পান্ডা দিয়ে ইনকাম করা

এটা একটি ইন্টারন্যাশনাল অ্যাপ। বাংলাদেশ অনেক জনপ্রিয়। এই অ্যাপে আপনি খাবার বিক্রি করে খুব সহজেই ইনকাম করতে পারবেন।

আপনি যদি ভাল রান্না করতে পারেন। এবং আপনার প্রতি ইন্টারেস্ট আছে। তাহলে আপনি ফুডপান্ডা খাবার বিক্রি করে ইনকাম করতে পারেন।

কাজ করার নিয়ম : অবশ্যই আপনাকে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশন করতে ক্লিক করুন । ফুডপান্ডায় রাইডিং করে ইনকাম করা যায়।

৭. বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম হলো শপআপ দিয়ে ইনকাম করা

অনেক চমৎকার একটি অ্যাপ। এখানে থেকে মূলত রিসেলিং করে ইনকাম করা হয়।

আপনি শুধু কোম্পানির দেওয়া মূল্য থেকে বেশি মূল্যে প্রোডাক্ট গুলো বিক্রি করে দিবেন। মাঝখান থেকে আপনার লাভ হবে।

এটা বাংলাদেশের অনেক নামকরা অ্যাপ। বিকাশে খুব সহজে ইনকাম করতে পারবেন।

অ্যাপ থেকে ইনকাম করা কতটুকু যুক্তিযুক্ত বিষয়

প্রথমে বলবো অ্যাপ থেকে ইনকাম করা সম- সাময়িকের জন্য লাইফ টাইম এর জন্য নয়। অনেক সময় আবার ইনকাম করার পর অ্যাপ কর্তৃপক্ষ টাকা দেয় না।

পাশাপাশি ইনকাম খুব কম হয়। অ্যাপ খুব তাড়াতাড়ি স্ক্যাম করে। তাই অ্যাপ থেকে ইনকাম করার চিন্তা বাদ দিয়ে এমন একটি কাজ শুরু করুন যেটা লাইফ টাইম এর জন্য এবং অল্প কষ্ট করে বেশি টাকা পাওয়া যায়।

এবং যে কোন একটি কাজের উপর স্কিল তৈরি করুন অর্থাৎ দক্ষতা তৈরি করুন। কেননা অভিজ্ঞতা ছাড়া বর্তমানে দাম নেই। আপনি যেখানেই যান না কেন সেখানেই প্রতিযোগিতায় বেশি।

অতএব আপনাকে কাজ করতে হলে যেকোনো একটি কাজের উপর দক্ষতা অর্জন করেই কাজ করতে হবে তাহলে আপনি খুব সহজেই সফলতা লাভ করতে পারবেন।

অতএব আপনি অ্যাপের মধ্যে কাজ করবেন কি করবেন না এটা আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার। আমি এখানে কয়েকটি অ্যাপের কথা বলেছি যেগুলো প্রত্যেকটি ট্রাস্টেট।

এখান থেকে কাজ করতে পারবেন। এবং কাজ করলে টাকা পাবেন।

কাজ করার পূর্বে অ্যাপ যাচাই করণ আবশ্যক

অর্থাৎ আপনি যে অ্যাপে কাজ করেন না কেন অবশ্যই কাজ করার পূর্বে ওই অ্যাপ সম্পর্কে ভালভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও পাশাপাশি ধারণা নিতে হবে।

কেননা অ্যাপ বেশিদিন মার্কেটে থাকে না। খুব তাড়াতাড়ি স্ক্যাম করে। তাই অবশ্যই আপনাকে সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে কাজ করার পূর্বে।

পরিশেষে বলব : আমি উপরে বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম সম্পর্কে আলোচনা করেছে। আপনি যদি এখানে কাজ করেন ১০০% পেমেন্ট পাবেন।

তবে আপনি অ্যাপ নিয়ে কাজ করবেন না অন্য কিছু নিয়ে কাজ করবেন এটা আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার। আপনি যাই করেন যাচাই-বাছাই করে কাজ করবেন। ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন : ঘরে বসে টাকা আয় করতে চাই ২০২২

Leave a Reply

Your email address will not be published.

2 − one =