অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড ব্যবসা আইডিয়া

 আপনি কি অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড ব্যবসা করতে চান ? ফ্লেক্সিলোড ব্যবসা অনেক চাহিদা বলল। এই ব্যবসার চাহিদা কখনো শেষ হবে না । কেননা যতদিন পর্যন্ত মোবাইলে কথা বলার সিস্টেম থাকবে ততদিন পর্যন্ত মোবাইল রিচার্জ করতে হবে।

অতএব ফেক্সিলোডের চাহিদা দিন দিন বাড়তে থাকবে কমবে না। এখন সবাই ঘরে বসে অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড করতে চায়। দোকানে যেয়ে ফেক্সিলোড করতে চায়না। আপনি মানুষের এ চাহিদাকে কাজে লাগাতে পারেন। অর্থাৎ আপনি অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

তাই আজ কিভাবে আপনি অনলাইনে এ ব্যবসা শুরু করবেন এ সম্পর্কে আমি বিস্তারিতভাবে আইডিয়া দিব। চলুন আলোচনা শুরু করা যাক।

অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড ব্যবসা
অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড ব্যবসা

অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড ব্যবসা করার নিয়ম

আপনি খুব সহজেই অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড এর ব্যবসা শুরু করতে পারেন। ব্যবসা শুরু করার জন্য অবশ্যই আপনাকে কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করতে হবে।

প্রথমত আপনি ফেসবুকে একটি বিজনেস পেজ তৈরি করবেন। এরপর এই পেজটাকে অনেক প্রচার প্রসার চালাবেন।

কিভাবে ফেসবুকে প্রচার প্রচার চালানো যায় এ ব্যাপার আমার একটা আর্টিকেল আছে সে আর্টিকেলটি পড়তে পারেন।

আরো পড়ুন : ফেসবুক মার্কেটিং করে ঘরে বসে অনলাইনে আয়

যখন আপনার পেজটি প্রচার-প্রসার হয়ে যাবে। মানুষের কাছে প্রসিদ্ধ হয়ে যাবে। এবং মানুষের মাঝে বিশ্বাস অর্জন করবেন। তখন আপনি ফ্লেক্সিলোড এর ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

এজন্য আপনি অনলাইনে এ ব্যাপারে অ্যাড দেবেন যে, আপনি অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড করে থাকেন। এরপর থেকে আপনি খুব সহজেই গ্রাহক পেয়ে যাবেন।

যখনই কোনো মানুষের ফ্লেক্সিলোড প্রয়োজন পড়বে। তখনই তারা আপনাকে মেসেজ এর মাধ্যমে জানাবে যে তাদের ফেক্সিলোড প্রয়োজন। তখন আপনি খুব সহজে তাদের ফেক্সিলোড করে দিবেন।

এরপর আপনি বিকাশ নগদ ইত্যাদির মাধ্যমে পেমেন্ট গ্রহন করবেন। উপরোক্ত সিস্টেমে আপনি খুব সহজেই ফ্লেক্সিলোড এর ব্যবসা করতে পারেন।

অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড ব্যবসায় আরো সফলতা অর্জন করার জন্য কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করতে পারেন।

আপনি সরাসরি ফ্লেক্সিলোড এর দোকান দিবেন। দোকান দেওয়ার ক্ষেত্রে অবশ্যই এমন জায়গা বাছাই করবেন যেখানে লোকজনের সমগম বেশি। তাহলে আপনি খুব সহজেই সফলতা অর্জন করতে পারবেন। যখন আপনি সরাসরি অফলাইনে দোকান দিবেন তখন আপনার দুইভাবে ইনকাম হবে।

  • সরাসরি ফ্লেক্সিলোড করে ইনকাম করতে পারছেন।
  • অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড করে ইনকাম করতে পারছেন।

অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড ব্যবসা পাশাপাশি মোবাইল কোম্পানির অফার গুলো বিক্রি করা।

ফ্লেক্সিলোড পাশাপাশি মোবাইল কোম্পানির বিভিন্ন অফার গুলো বিক্রি করতে পারেন। এতে করে আপনার দ্বিগুণ মুনাফা অর্জন হবে। খুব সহজেই সফলতার উচ্চ শিখরে পৌঁছতে পারবেন।

এর কারণ হলো ফ্লেক্সিলোড এর ক্ষেত্রে 1000 টাকার বিনিময় মাত্র 28 টাকা কমিশন দেয়। আর প্রত্যেকটি অফারে প্রায় 30 থেকে 40 টাকা লাভ হয়।

একটি উদাহরণ দিয়ে বলি : গ্রামীণফোনের ৪০ জিবি ডাটা এবং ৮০০ মিনিট এর রেগুলার দাম হল ৬৯০ টাকা। কোম্পানি আপনাকে ৪৩০ টাকায় এই অফারটি দিয়ে দিবে। আর আপনি এই অফারটি 460 টাকায় বিক্রি করতে পারবেন।

এভাবে আপনার প্রায় 30 টাকা লাভ হল। এ অফার গুলো আপনি সরাসরি বিক্রি করতে পারেন। আবার অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড এর সাথে সাথে এই অফার গুলো বিক্রি করতে পারেন।

প্রতিদিন আপনি যদি দশটি অফার বিক্রি করতে পারেন। তাহলে আপনার ৩০০ টাকা থাকবে। পাশাপাশি কিছু কিছু অফার এমন থাকে যেখানে 80 থেকে 90 টাকা আপনি ইনকাম করতে পারবেন প্রতি অফারে। তাহলে আপনি বুঝতে পারছেন প্রত্যেকটি অফারে কত টাকা লাভ করা যায়।

পরিশেষে বলব : উপরে অনলাইনে ফ্লেক্সিলোড ব্যবসা সম্পর্কে আইডিয়া দেয়া হয়েছে। আশা করি আপনি খুব ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন। অতএব আপনি ফেক্সিলোড ব্যবসার সাথে সাথে বিভিন্ন অফার গুলোর ব্যবসা করতে পারেন।

এক্ষেত্রে আপনি দ্বিগুণ লাভবান হতে পারবেন। যদি এই আইডিয়া গুলো ভালো লেগে থাকে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। পাশাপাশি আপনি আপনার বন্ধু বান্ধবদের সাথে শেয়ার করবেন। ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন :-

  1. কসমেটিকস পাইকারি বাজার কোথায় কোথায় রয়েছে ?
  2. ছাত্রদের জন্য ব্যবসা আইডিয়া ১৮টি যেগুলো খুবই লাভজনক
  3. ক্ষুদ্র ব্যবসার তালিকা
  4. ঘরোয়া ব্যবসা

Leave a Reply

Your email address will not be published.

1 × 4 =