সাপ্লাই ব্যবসা কি এবং ৬টি লাভজনক সাপ্লাই ব্যবসার আইডিয়া

আপনি কি জানতে চান সাপ্লাই ব্যবসা সম্পর্কে ? ব্যবসা সবাই করতে চায়। কিন্তু ডিসাইড করতে পারে না কোন ব্যবসাটি সে করবে। ফলে ব্যবসা এর আগ্রহ ধীরে ধীরে কমে যায়।

একসময় আর ব্যবসা করা হয় না। আজ আমি সাপ্লাই ব্যবসা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। কেননা এটা এমন একটি ব্যবসা যেখানে স্বল্প পুঁজিতে বেশি লাভবান হওয়া যায় এবং অল্প সময়ে সফল হওয়া যায়।

সাপ্লাই ব্যবসা

সাপ্লাই ব্যবসা কি ?

কোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অথবা যেকোন স্থানে প্রয়োজন মোতাবেক কোন পণ্য সরবরাহ করাকে সাপ্লাই বলা হয়। আমরা কথাই বলতে পারি একটি পণ্যকে এক স্থান থেকে নিয়ে অন্য স্থানে পৌঁছে দেওয়া।

সাপ্লাই ব্যবসা শুরু করার জন্য কি কি পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে ?

দুইভাবে সাপ্লাই দিতে পারে।

(১) কোন পণ্য সাপ্লাই দিবেন। (২) কাগজপত্র সাপ্লাই দিতে পারেন।

আপনি চাইলে সরকারি প্রতিষ্ঠান বা কোম্পানিতে সাপ্লাই দিতে পারেন আবার বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বা দোকানে সাপ্লাই দিতে পারেন।

পাশাপাশি এ ব্যবসা শুরু করার জন্য আপনার কয়েক ধরনের কাগজপত্র বা ডকুমেন্ট থাকতে হবে।

  • আপনার ব্যাংক একাউন্ট থাকতে হবে।
  • ট্রেড লাইসেন্স থাকতে হবে। যাতে করে পরবর্তীতে সমস্যা না হয়।
  • টিন সার্টিফিকেট থাকতে হবে।

ইত্যাদি এ সমস্ত কাগজপত্র থাকতে হবে। কেননা এ সমস্ত কাগজপত্র একজন ব্যবসায়ীর ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ।

এই সাপ্লাই ব্যবসায় কেমন লাভবান হওয়া যায় ?

এই ব্যবসায় আপনি অল্প পুঁজি ব্যবহার করে প্রচুর পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আরেকটি বিষয় : নিজে পণ্য তৈরি করে সাপ্লাই দিতে পারেন অথবা কোন কোম্পানির কাছ থেকে ক্রয় করে সাপ্লাই দিতে পারেন। দুনো অবস্খাতেই প্রচুর পরিমাণে লাভ রয়েছে। তাই আপনি নির্দ্বিধায় এ ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

সাপ্লাই ব্যবসার আইডিয়া

আমি এখানে প্রায় ৬ টি ব্যবসা সম্পর্কে আইডিয়া দিব। অতএব আপনি যদি step-by-step ফলো করেন তাহলে খুব সহজেই অল্প সময়ে এ ব্যবসা করে লাভবান হতে পারে।

১. মুদি মালের সাপ্লাই ব্যবসা

মুদি মাল আমাদের অনেক প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের মধ্য থেকে একটি । কেননা দৈনন্দিন যে সমস্ত পণ্য আমাদের প্রয়োজন হয় তাদের অধিকাংশ মুদি মাল।

অতএব বোঝা যাচ্ছে এ পণ্যের চাহিদা অনেক বেশি। তাই আপনি খুব সহজে এ ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন।

এই ব্যবসা করার নিয়ম হলো: মুদি মাল নিজে তৈরি করে অথবা কোম্পানির কাছ থেকে ক্রয় করে যে কোন প্রতিষ্ঠানে বা দোকানে সাপ্লাই করা।

২. টি-শার্ট সাপ্লাই ব্যবসা

এই ব্যবসা অনেক লাভজনক এবং চমৎকার। পাশাপাশি এ ব্যবসায় অনেক চাহিদা রয়েছে। কেননা ছোট থেকে বড় অধিকাংশ মানুষই টি-শার্ট পরিধান করে। বিশেষ করে ডিজাইনকৃত টি-শার্ট।

এই ব্যবসা শুরু করার নিয়ম : আপনি বিভিন্ন কোম্পানির কাছ থেকে ডিজাইন ছাড়া টি-শার্ট ক্রয় করবেন। তারপর বিভিন্ন রকম ডিজাইন করে বিভিন্ন দোকানে দোকানে সাপ্লাই দিতে পারেন।

অথবা ডিজাইনকৃত টি-শার্ট ক্রয় করবেন তারপর ওই ডিজাইনকৃত টি-শার্ট সাপ্লাই দিবেন। আর এ ব্যবসার পুঁজি হিসেবে আপনি 5 থেকে 10 লাখ টাকা দিয়ে শুরু করতে পারেন।

৩. গার্মেন্টসের এক্সোসরিজ সাপ্লাই ব্যবসা

আমাদের দেশে প্রচুর পরিমাণে গার্মেন্টস রয়েছে। কেননা আমাদের দেশ পোশাকশিল্পে অনেক অগ্রগামী। প্রতিটা গার্মেন্টসে পোশাক তৈরি করার জন্য তাদের সব সময় কিছু জিনিস প্রয়োজন পড়ে। অতএব আপনি এ সমস্ত পণ্য সাপ্লাই দিতে পারেন বা সরবরাহ করতে পারো।

এ ব্যবসা শুরু করার নিয়ম : সর্বপ্রথম আপনাকে গার্মেন্টসের যে সমস্ত এক্সোসরিজ প্রয়োজন পড়ে সেগুলো নির্ধারণ করতে হবে।

কয়েকটি এক্সোসরিজের নাম দেয়া হলো:

  • সুতা
  • লেভেল
  • বোতাম
  • জিপার
  • ট্যাগ

ইত্যাদি এ সমস্ত বিষয় সম্পর্কে আপনার ভালোভাবে আইডিয়া নিতে হবে। তারপর এগুলো গার্মেন্টস কোম্পানিতে সরবরাহ করবেন প্রয়োজন অনুযায়ী। এই ব্যবসা অল্প পুজিতে শুরু করতে পারেন। প্রচুর পরিমাণে লাভ করতে পারবেন।

৪. স্টেশনারি পণ্য সাপ্লাই করা

স্টেশনারি পণ্যের অনেক চাহিদা রয়েছে। এ ব্যবসা অনেক জাকজমকপূর্ণ ব্যবসা। আপনি এ ব্যবসা খুব সহজেই শুরু করতে পারেন। এ ব্যবসা শুরু করার নিয়ম হলো : আপনি বিভিন্ন কোম্পানির কাছ থেকে স্টেশনারি পণ্য ক্রয় করে বিভিন্ন ছোট ছোট দোকানে সাপ্লাই দিবেন।

অথবা বিভিন্ন স্কুলে স্কুলে সাপ্লাই দিবেন। এ ব্যবসা শুরু করার জন্য পুঁজি বেশি লাগবেনা। বরং অল্প পুঁজি দিয়ে এ ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

৫. ব্যাগ সাপ্লাই করা

ব্যাগের চাহিদা অনেক বেশি। প্রতিটি পণ্য বহন করার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়। সুতরাং বুঝা যাচ্ছে ব্যাগের চাহিদা অনেক বেশি। অতএব আপনি কোম্পানির কাছ থেকে ক্রয় করে তা সাপ্লাই দিতে পারেন অথবা নিজে ব্যাগ তৈরি করেও সাপ্লাই দিতে পারেন। এ ব্যবসায় পুঁজি খুব কম লাগে । তবে লাভ অনেক বেশি। অতএব এ ব্যবসা এ আজই শুরু করে দিতে পারেন।

৬. হোটেল বা রেস্টুরেন্টে পণ্য সরবরাহ করা

বড় বড় খাবার হোটেলে বা রেস্টুরেন্টে প্রতিদিন প্রচুর পরিমাণে কাঁচামাল থেকে শুরু করে মশলা ইত্যাদি লাগে। আপনি এ সুযোগটি কাজে লাগাতে পারেন। আপনি হোটেল ম্যানেজমেন্ট এর সাথে কথা বলে তাদের সাথে চুক্তি করতে পারেন। এরকম চুক্তি করতে পারেন যে, হোটেলের যত ধরনের পণ্য আছে সমস্ত পণ্য সরবরাহ করবেন।

বা নির্দিষ্ট একটি পণ্য সরবরাহ করবেন। আর এক্ষেত্রে আপনি সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে কাঁচামাল সংগ্রহ করে ওই হোটেলে দিতে পারেন। এবং অন্যান্য পণ্য বিভিন্ন কোম্পানির কাছ ক্রয় করে ওই হোটেলে বা রেস্টুরেন্টে দিতে পারেন। এভাবে আপনি খুব সহজেই পণ্য সাপ্লাই দিয়ে ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারেন। এ ব্যবসায় পুঁজি খুব কম লাগে। লাভ অনেক বেশি হয়।

পরিশেষে বলব : উপরে সাপ্লাই ব্যবসা সম্পর্কে মোটামুটি আলোচনা করলাম। যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে এবং কোন ধরনের উপকার হয়। তাহলে অবশ্যই জানাবেন। ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

one + fourteen =