অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করার নিয়ম

আপনি কি অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করার পদ্ধতি জানতে চান ? ড্রাইভিং লাইসেন্স অনেক গুরুত্বপূর্ণ । কেননা ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালানো যায় না।

অবশ্যই আমাদেরকে ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে হবে। ড্রাইভিং লাইসেন্স হাতে আসতে অনেক সময় লাগে । ফলে যারা নতুন ড্রাইভিং লাইসেন্স এর আবেদন করেছেন তারা বিভিন্ন চিন্তা করে কখন ড্রাইভিং লাইসেন্স হাতে আসবে ? আরো নানান পেরেশানিতে ভুগেন।

কিন্তু খুশির ব্যাপার হলো বর্তমানে  আপনি ঘরে বসেই ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করতে পারবেন খুব সহজে। আজ আমি বিস্তারিতভাবে বলব অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করার পদ্ধতি।

যাতে করে আপনি খুব সহজেই ড্রাইভিং লাইসেন্স সম্পর্কে ঘরে বসে জানতে পারেন। কোন ধরনের চিন্তা এবং পেরেশানি ছাড়া ।

অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক
অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক

অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করার নিয়ম

আপনি দুই ভাবে ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করতে পারবেন। ১. অ্যাপের মাধ্যমে। ২. এসএমএসের মাধ্যমে। বিস্তারিতভাবে আলোচনা করব এই দুই পদ্ধতির ব্যাপারে।
ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করার জন্য অবশ্যই  একটি জিনিস প্রয়োজন পড়বে সেটা হল :  রেফারেন্স নাম্বার। আর রেফারেন্স নাম্বার আপনি পাবেন ওই প্রাপ্তি স্বীকার রশিদ এর মধ্যে যে রশিদটি ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য আবেদন করার পরে দেয়া হয়েছিল।


এসএমএসের মাধ্যমে ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করার নিয়ম

আপনার ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য আবেদন করার পর আপনাকে আর বিআরটিএ অফিসে যেতে হবে না ঐ লাইসেন্সটি প্রিন্টিং এর কোন অবস্থায় আছে তা জানার জন্য। আপনি খুব সহজে ঘরে বসে জানতে পারবেন এসএমএসের মাধ্যমে। পদ্ধতি হলো : আপনার মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে লেখুন  DL এরপর স্পেস দেবেন তারপর রেফারেন্স নাম্বার দেবেন । তারপর 26969 এই নাম্বারে পাঠিয়ে দিবেন।  এরপর কিছুক্ষণের মধ্যে আপনাকে জানিয়ে দেয়া হবে আপনার লাইসেন্স এর ব্যাপারে।


অ্যাপের মাধ্যমে অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক

সর্বপ্রথম আপনি প্লে স্টোর থেকে DL checker অ্যাপটি ডাউনলোড করুন। তারপর অ্যাপটিতে প্রবেশ করুন। সেখানে প্রথমে আপনার রেফারেন্স নাম্বার টা দিন। তারপর আপনার জন্ম তারিখ দিন।

তারপর সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন। তারপরে আপনি আপনার ড্রাইভিং লাইসেন্স টি দেখতে পারবেন। পাশাপাশি আপনি বুঝতে পারবেন আপনার ড্রাইভিং লাইসেন্স কোন অবস্থায় আছে এবং পরিপূর্ণ  হয়েছে কিনা ? নাকি পেন্ডিং আছে ইত্যাদি এ সমস্ত বিষয় বিস্তারিত ভাবে দেখতে পাবেন।


ভুয়া ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করার নিয়ম

বর্তমান সময়ে প্রচুর বাটপার রয়েছে। তারা আপনাকে ড্রাইভিং লাইসেন্সের ব্যাপারে ধোঁকা দিতে পারে। এই ধোঁকা থেকে বাঁচার জন্য আপনি ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করতে পারেন খুব সহজেই।

এর জন্য আপনি আপনার মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে লিখুন DL এরপর  স্পেস দিন এরপর লাইসেন্স নাম্বারটি দিন। তারপর ২৬৯৬৯ এর নাম্বারে মেসেজটি পাঠিয়ে দিন। কিছুক্ষণের মধ্যে আপনাকে জানিয়ে দেয়া হবে ড্রাইভিং লাইসেন্সটি ভুয়া কিনা সঠিক ? সঠিক হলে মুল ডাইভারের নাম কি !  লাইসেন্স এর ধরন কি ? ইত্যাদি নানান বিষয়।

পরিশেষে বলব : উপরে অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করার দুটি নিয়ম বললাম। অর্থাৎ একটি নিয়ম বললাম এসএমএস এর মাধ্যমে আরেকটি নিয়ম বললাম আরেকটি অ্যাপ এর মাধ্যমে।

আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। আমি নিয়মগুলো যেভাবে যেভাবে বলেছি সে ভাবে পালন করার চেষ্টা করবেন। আশা করি কোন ধরনের ঝামেলায় পড়বেন না। যদি এই লেখাটি ভাল লেগে থাকে। তাহলে অবশ্যই জানাবেন। বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন। ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন : অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম

রেফারেন্স নাম্বার হারিয়ে গেলে  করনীয় কি ?

যদি আপনি আপনার রেফারেন্স নাম্বার হারিয়ে ফেলেন তাহলে এক্ষেত্রে আপনার জন্য কর্তব্য হলো আপনি আপনার নিকটস্থ বিআরটিএ অফিসে যোগাযোগ করবেন। তাহলে একটি সমাধান বেরিয়ে আসবে।

ড্রাইভিং লাইসেন্স অনলাইন চেক করে কিভাবে ?

আপনি খুব সহজে এসএমএসের মাধ্যমে অথবা অ্যাপের মাধ্যমে চেক করতে পারবেন।

রেফারেন্স নাম্বার কোথায় পাবো ?

ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য আবেদন করার পর আপনাকে যে একটি রশিদ দেওয়া হয়েছিল সেখানেই রেফারেন্স নাম্বার পাবেন।

ড্রাইভিং লাইসেন্স কত দিন পর পাওয়া যায় ?

প্রত্যেকটি ড্রাইভিং লাইসেন্স এর আবেদন করার পর ওই লাইসেন্স দেওয়ার নির্দিষ্ট তারিখ বলে দেওয়া হয় ‌। অতএব আপনি ওই তারিখেই লাইসেন্সটি পেয়ে যাবেন। তবে আপনাকে অস্থায়ী একটি লাইসেন্স দেয়া হবে তিন থেকে চার মাস পরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

20 − 2 =