জন্ম নিবন্ধন যাচাই | জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক apps

আপনি কি জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে চান ? জন্ম নিবন্ধন সনদ প্রত্যেকটি মানুষের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি সনদ। কেননা এটা বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিভিন্ন প্রয়োজনে আমাদের কাজে লাগে।

আগে জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে পাওয়া যেত না। বর্তমানে অনলাইনে পাওয়া যাচ্ছে। অতএব আজ আমি জন্ম নিবন্ধন চেক সম্পর্কে আলোচনা করব। পাশাপাশি জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি ডাউনলোড সম্পর্কে আলোচনা করব।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই

জন্ম নিবন্ধন যাচাই 2022

যাচাই করা একদম সহজ। জন্ম নিবন্ধন চেক করার জন্য সর্বপ্রথম everify.bdris.gov.bd ওয়েব সাইটে প্রবেশ করতে হবে। এখানে যাচাই করার জন্য আপনার জন্ম নিবন্ধন এর নাম্বার এবং জন্ম তারিখ লাগবে। ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর ঠিক এরকম দেখাবে।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই

এখানে সর্বপ্রথম আপনি আপনার 17 ডিজিটের নিবন্ধন নাম্বারটি দিবেন তারপর জন্ম তারিখ দেবেন। অনেকেরই নিবন্ধন নম্বর টি 16 ডিজিটের রয়েছে।

কিন্তু এখানে 17 ডিজিটের দিতে হবে। যদি আপনি 16 ডিজিটের নাম্বার দেন তাহলে আপনি জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন না। এই কারণে অবশ্যই আপনাকে 17 ডিজিটের নাম্বার দিতে হবে। তাহলে খুব সহজেই আপনার জন্ম নিবন্ধন চেক করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন ১৭ ডিজিট করার নিয়ম

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আসার পর ১৬ ডিজিট থেকে 17 ডিজিট করা হয়েছে মানুষ ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পাচ্ছে এ কারণে। আপনি খুব সহজেই ১৬ ডিজিট থেকে 17 ডিজিট করতে পারবেন। কোন ধরনের ঝামেলা ছাড়াই।

17 ডিজিট করার জন্য প্রথমে ১৬ ডিজিটের যে জন্ম নিবন্ধন রয়েছে সেই 16 ডিজিটের শেষ পাঁচ ডিজিট পূর্বে একটি শূন্য যোগ করতে হবে। অথবা আরেকভাবে শূন্য যোগ করতে পারবেন সেটা হল 11 ডিজিটের পরে একটি শূন্য যোগ করতে পারবেন। এভাবেই আপনার 17 ডিজিট হয়ে যাবে।

যখন আপনি 17 ডিজিট দিবেন এবং জন্ম তারিখ দিবেন তখন খুব সহজেই আপনার জন্ম নিবন্ধন দেখতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক apps

এতক্ষণ যে নিয়মটা বললাম এটা ছিল কম্পিউটারের মাধ্যমে। অর্থাৎ উপরোক্ত নিয়মে আপনি খুব সহজেই আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন চেক করতে পারবেন কম্পিউটারের মধ্যে ।

আপনি চাইলে মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে জন্ম নিবন্ধন চেক করতে পারেন। এজন্য আপনি আপনার মোবাইলের গুগল প্লে স্টোরে যাবেন। তারপর জন্ম তথ্য যাচাই ও নিবন্ধন লিখে সার্চ দিবেন। নিচের পেজের মত একটি অ্যাপ পাবেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই

তারপর এই অ্যাপটি আপনি ইন্সটল করবেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই apps এর নিয়ম

সর্বপ্রথম আপনি অ্যাপটি ইন্সটল করবেন আপনার মোবাইলে। তারপর ওয়েবসাইটির মত একটি পেজ আসবে। যেখানে আপনি আপনার 17 ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নাম্বার দিবেন এবং আপনার জন্ম তারিখ দেবেন।

এরপর অনুসন্ধান অপশনে ক্লিক করবেন। এই সিস্টেমে আপনি খুব সহজেই আপনার জন্ম নিবন্ধন চেক করতে পারবেন। কোন ধরনের ঝামেলা ছাড়াই।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি ডাউনলোড

উপরোক্ত সিস্টেমে যখন আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন চেক করবেন। তখন আপনার সামনে জন্ম নিবন্ধনের পেজটি আসবে। এরপর আপনি খুব সহজেই প্রিন্ট দিয়ে বের করতে পারবেন।

কম্পিউটারের ক্ষেত্রে প্রিন্ট দেওয়ার জন্য প্রিন্ট অপশন দেখতে পারবেন আর যদি দেখতে না পারেন তাহলে কন্ট্রোল +পি বাটন ক্লিক করবেন। তাহলে খুব সহজেই আপনার জন্ম নিবন্ধনের কপিটি পেয়ে যাবেন।

যদি মোবাইলে হয় তাহলে আপনি দুইটি কাজ করতে পারেন। প্রথমত পিডিএফ হিসেবে ডাউনলোড করতে পারেন। দ্বিতীয়তঃ যদি পিডিএফ হিসেবে না ডাউনলোড করতে পারেন তাহলে স্ক্রিনশট দিবেন এরপর সেটাকে প্রিন্ট করে বের করবেন।

পরিশেষে বলব : উপরে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো। যদি আপনি step-by-step ফলো করেন তাহলে খুব সহজেই চেক করতে পারবেন। ডাউনলোড করে সংগ্রহ করতে পারবেন। যদি আপনি উপকার পেয়ে থাকেন। তাহলে কমেন্ট করে জানাবেন। কোন প্রশ্ন থাকলে তাও বলবেন। ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন :

জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল কি না যাচাই

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন হয়েছে কিনা যাচাই করার জন্য আপনি নামক ওয়েবসাইটে যাবেন তারপর আপনি আপনার 17 ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নাম্বার টা দিবেন।
এরপর আপনি আপনার জন্ম তারিখ দিবেন। এরপর অনুসন্ধান অপশনে ক্লিক করবেন। যদি আপনার জন্ম নিবন্ধনটি এসে পড়ে। তাহলে বুঝবেন আপনার জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল হয়েছে। আর যদি না আসে তাহলে বুঝবেন আপনার জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল হয়নি।

জন্ম নিবন্ধন চেক করার জন্য কি কি জিনিস লাগে ?

যাচাই করার জন্য দুইটা জিনিস লাগে ১/ জন্ম নিবন্ধনের ১৭ ডিজিটর নাম্বার। ২/ আপনার জন্ম তারিখ। এই দুটি জিনিসের মাধ্যমে খুব সহজেই চেক করতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

8 − 1 =