ইউনিক বিজনেস আইডিয়া ১০টি যা খুবই লাভজনক

আপনি কি ইউনিক বিজনেস আইডিয়া খুজছেন ? আনকম বিজনেস করা নিয়ে অনেকের মনেই একটা আগ্রহ থাকে,

আর এই আগ্রহ থাকাটা খুবই স্বাভাবিক, সাধারণত যারা সবসময় সৃজনশীল বিষয় নিয়ে কাজ করতে চায় তারাই ইউনিক ধারণার তালাশ করে।

কিন্তু আনকমন ব্যবসার আইডিয়া খুঁজে পাওয়া খুবই কঠিন, কারণ যখন কেউ নতুন কোন কিছু করতে ইচ্ছে পোষণ করে,

তখন তার মাথায় বেশ কিছু প্রশ্ন যেমন:

  • আমি কি পারবো ?
  • কত খরচ হবে ?
  • কোথা হতে পাবো ?
  • কে কিনবে ?
  • কে টাকা দিবে ?

ইত্যাদি বিভিন্ন রকমের প্রশ্ন ঘুরপাক খেতে থাকে, সেসব হতাশা গ্রস্থ সৃজনশীল উদ্যোক্তাদের সাহায্য করাই আজকের প্রচেষ্টা।

বর্তমানে বিভিন্ন ব্যবসার সাফল্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, যারা নতুন ধারণা নিয়ে ব্যবসার জগতে এসেছে, তারাই বেশি সফল হচ্ছে। তাই আজ আমি ইউনিক বিজনেস আইডিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব

ইউনিক বিজনেস আইডিয়া

ইউনিক বিজনেস আইডিয়া ২০২২

আমি এখানে ১০টি ইউনিক ও সফল ব্যবসার তালিকা উপস্থাপনা করলাম । যদি আপনি এগুলো ফলো করে ১০০% আপনি সফল হবেন।

১. ক্লিনার সাপ্লাই ব্যবসা

বর্তমান মহামারীর সময় এটি একটি খুবই লাভজনক ব্যবসা। যদিও এটি পুরাতন ব্যবসা তারপরও নতুন ব্যবসার আইডিয়া হিসেবে ক্লিনার সাপ্লাইকে রাখলাম।

এর কারণ হচ্ছে আপনি প্রচলিত ধারার বাইরে গিয়ে নতুন মডেলে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। আপনি যদি নতুন মডেলে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন ।

তাহলে আপনি অবশ্যই ভাল সাড়া পাবেন কারণ বর্তমানে ক্লিনারের চাহিদা অনেক। বাড়িঘর থেকে শুরু করে অফিস-আদালত সব যায়গায় ক্লিনারের প্রচুর চাহিদা।


এই ব্যবসা করার জন্য আপনাকে প্রথম পর্যাপ্ত সংখ্যক ক্লিনার সংগ্রহ করতে হবে। তারপর তাদেরকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য একটি ট্রেনিং সেন্টার স্থাপন করতে হবে।

সেখানে আপনার নিয়োগ করা প্রশিক্ষকরা তাদেরকে প্রশিক্ষণ দিবেন। মনে রাখবেন প্রশিক্ষিত মানুষের চাহিদা বেশি।

এই মহামারীর অবস্থায় অফিস, আদালত, বাড়িতে যে কোন ক্লিনার তারা রাখতে চায় না, প্রশিক্ষিত ক্লিনারের খোঁজ করে।

আর প্রশিক্ষিত ক্লিনারের বেতন বেশি। বেতন বেশি হলে আপনার কমিশনও বেশি হবে। এছাড়াও
বর্তমানে অনেক প্রতিষ্ঠান আউট সোর্সিং এর মাধ্যমে তাদের প্রতিষ্ঠানে ক্লিনার নিয়োগ দিচ্ছে।

এক্ষেত্রে যারা প্রশিক্ষিত ক্লিনার তাদেরকে অবশ্যই অগ্রাধিকার দেওয়া হয়। সুতরাং আপনার এখানে বড় একটা ব্যবসার সুযোগ আছে।

নির্দিষ্ট ফি’র বিনিময়ে আপনি যদি নিয়মিত বিভিন্ন বাসাবাড়িসহ অফিসে ক্লিনার সাপ্লাই দিতে পারেন তাহলে এই ইউনিক বিজনেস আইডিয়া আপনার জন্য খুবই লাভজনক ব্যবসায় পরিণত হবে ইনশাআল্লাহ।

২. অনলাইন বিজনেস আইডিয়া হলো খাবারের হোম ডেলিভারি

কর্মব্যস্ততার যুগে বাড়িতে রোজ রান্না করার সুযোগ হয় না অনেকেরই, আবার প্রতিদিন হোটেলের খাবারও খেতে চান না বেশিরভাগ।

এই চাহিদা মেটাতেই শুরু হয়েছিল খাবারের হোম ডেলিভারির ব্যবসা। নিজের বাড়িতে রান্না করে পৌঁছে দিন বাড়িতে, অফিসে। সময় মতো সুস্বাদু খাবার দিতে পারলে ব্যবসার অভাব হবে না।

কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন অঞ্চলে ব্যবসার সুযোগটা একটু বেশি। শহরের বাইরে থেকে পড়তে আসা ছাত্রছাত্রীরা অনেকেই রোজকার রান্না করতে চান না, সেক্ষেত্রে তাঁরা নির্ভর করেন হোম ডেলিভারির ওপর।

৩. ট্যুর গাইড এর বিজনেস

আমাদের দেশের লোকেরা বেড়াতে যেতে ভালবাসে। আর তার জন্য তারা অনেক সময়েই নির্ভর করে ট্যুর গাইডের ওপর।

ফ্লাইট, ট্রেনের টিকিট বুকিং, হোটেল বুকিং থেকে শুরু করে সম্পূর্ণ ট্যুরটি প্ল্যান করা পুরোটার দায়িত্ব আপনি নিতে পারেন । অফিস, স্কুল বা কলেজের ট্যুর করাতে পারলে নিয়মিত ব্যবসা পাওয়া সম্ভব। এটি কম খরচে লাভের ব্যবসা।

আপনাকে শুধু একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে হবে, আর যোগাযোগ তৈরি করতে হবে বিভিন্ন জায়গার হোটেলের সঙ্গে, জেনে নিতে হবে তাদের ট্র্যাভেল এজেন্ট কমিশনের রেট। খুঁজে বের করুন নতুন নতুন জায়গা।

পাশাপাশি প্রচার – প্রসারের জন্য মার্কেটিং করতে হবে । বর্তমানে সব থেকে লাভজনক ব্যবসার একটি ট্যুর অপারেটিংয়ের ব্যবসা।

৪ . ইউনিক বিজনেস আইডিয়া হলো ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট

ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট হচ্ছে সৃজনশীল ব্যক্তিদের ব্যবসা। সৃজনশীল বলছি এই কারণে যে, এই ব্যবসা করতে হলে আপনাকে সৃজনশীল হতেই হবে।

আপনার পরিকল্পনার মধ্যে নতুনত্ব থাকতে হবে। ভালভাবে পরিকল্পনা করতে না পারলে আপনি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসায় সফল হতে পারবেন না।

এছাড়া আপনাকে যোগাযোগে পারদর্শী হতে হবে। কারণ একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করার জন্য আপনাকে বিভিন্ন জনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে।

আপনি যদি ভালভাবে গুছিয়ে কথা না বলতে পারেন , তাহলে মানুষকে কনভিন্স করতে আপনার জন্য কঠিন হবে ওঠবে।


ধরেন আপনি একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করার জন্য একজন ভাল উপস্থাপক খুঁজছেন। কিন্তু আপনার যোগাযোগ অদক্ষতার কারণে আপনি সবচেয়ে ভাল উপস্থাপককে কনভিন্স করতে পারলেন না।

তখন আপনাকে একজন কম দক্ষ লোককে দিয়ে আপনাকে কাজ চালাতে হবে, যা আপনার ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসায় বদনাম/ ক্ষতি ডেকে আনতে পারে।


তাই আপনাকে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা শুরু করার পূর্বে এমন কিছু উদ্যমী ও স্মার্ট কর্মী জোগাড় করতে হবে, যারা আপনার সব ধরণের কাজে সাহায্য করতে সক্ষম।

৫. নিউ বিজনেস আইডিয়া হলো মোবাইল রিপেয়ারিং করা

ইউনিক বিজনেস আইডিয়া
ইউনিক বিজনেস আইডিয়া

বর্তমান মানুষের হাতে হাতে smatphone রয়েছে, আর এই স্মার্টফোন ফোন গুলি নিশ্চই কোন না কোন সময় খারাপ হয়।

তাই, আপনি যদি মোবাইল রিপেয়ারিং এর কাজটি শিখে একটি ছোট্ট দোকান দিয়ে বসতে পারেন সেখান থেকে বহু টাকা উপার্জন করতে সক্ষম হবেন।

মানুষ মোবাইল কিনবেই, আর মোবাইল যেহেতু electronic সেটা খারাপ হবেই এবং আর মানুষ আপনার কাছে আসবেই।

মোবাইল রিপেয়ারিং এর কাজ শুরু করতে আপনার বেশি পুঁজির প্রয়োজন হবেনা। আপনাকে প্রথমে মোবাইল রিপেয়ারিং এর course করতে হবে যেটা ৩ থেকে ৪ মাসেই হয়ে যাবে।

এবং এই কাজ বা কোর্স করতে আপনার বেশি টাকা প্রয়োজন হবে না। কেবল ৩ থেকে ৫ হাজারে এই course করা যায়।

আপনি যদি চান তাহলে youtube এ ভিডিও দেখে ফ্রি তে mobile repairing এর কাজ শিখতে পারবেন।

এরপর দোকান। মোবাইল রিপেয়ারিং এর জন্য আপনার বেশি বড় দোকানের প্রয়োজন হবেনা। কেবল নিজের কাজ করার মতো একটি ছোট্ট দোকান নিলেই হবে। তাই, এখানেও আপনার বেশি টাকার প্রয়োজন নেই।

এরপর অবশিষ্ট রইল Mobile repairing যন্ত্র পাতি যেগুলি ২ থেকে ৩ হাজার টাকার ভেতরে হয়ে যাবে। এভাবেই আপনি স্বল্প টাকায় একটি লাভবান ব্যবসা করতেন সক্ষম হবেন।

৬. ইউনিক বিজনেস আইডিয়া হলো খাঁটি ঘি এর ব্যবসা

বর্তমানে ঘি এর চাহিদা অনেক বেশি, মানুষ বিভিন্ন খাবারের সঙ্গে ঘি মিশ্রিত করে খেতে পছন্দ করে। এটি খুব জনপ্রিয় একটি খাদ্যদ্রব্য।

বাজারে বিভিন্ন রকমের ঘি পাওয়া যায়। প্রচুর পরিমাণে বিক্রি হয়, যেরূপ প্রচুর বিক্রি হয় তেমনি মানুষ প্রচুর ধোকা খায়/প্রতারিত হয়।

আপনি যদি বাড়িতে খাঁটি ঘি তৈরি করে স্বল্পমূল্যে বিভিন্ন দোকান যেমন মুদি দোকান, ফাস্টফুড ইত্যাদি বিভিন্ন দোকানে স্বল্পমূল্যের পাইকারি সেল করতে পারেন।

তাহলে অল্প দিনে বহু টাকা ইনকাম করতে সক্ষম হবেন। শুরুলগ্নে স্বল্পমূল্যে সেল করবেন, যখন আপনার খাঁটি ঘি এর প্রতি মানুষের চাহিদা বেড়ে যাবে,

তখন ধীরে ধীরে মূল্য বাড়িয়ে দিবেন। শুরুতেই বেশি দামে সেল করলে, মানুষ ক্রয় করতে তেমন আগ্রহী হবে না।

এছাড়া আপনি অনলাইনেও ঘি বিক্রি করতে পারবেন। সেখানেও আপনি পাইকারি ও খুচরা অনেক গ্রাহক পাবেন।

পাইকারি দরে বিক্রি এর চেয়ে খুচরা দরে বিক্রিতে বেশি লাভ করতে সক্ষম হবেন। এই ব্যবসায় লাভবান হওয়ার অন্যতম শর্ত হলো সততা অর্থাৎ খাঁটি ঘি তৈরি করা।

৭. নতুন বিজনেস আইডিয়া হলো স্কুল ব্যাগ এর ব্যবসা

এটি একটি নিত্যপ্রয়োজনীয় উপাদান। যেটা প্রায় সকল মানুষেরই প্রয়োজন। বিশেষ করে স্কুল ,কলেজ, ভার্সিটির ইত্যাদি প্রতিটি ছাত্র-ছাত্রীর জন্যই যা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান।

প্রতিবছরের শুরু লগ্নে বাজারে / বিভিন্ন মার্কেটে গেলে দেখা যায়, ব্যাগ ক্রয়-বিক্রয়ের যেন এক বড় উৎসব।

ফেব্রুয়ারি-মার্চেও অনেক দেখা যায়। জুন জুলাইতে ও দেখা যায় মাদ্রাসার ছাত্র ছাত্রীদের ব্যাগ কেনার বড় উৎসব।

এছাড়াও অনেক স্টুডেন্টকে বছরের বিভিন্ন সময় ব্যাগ ক্রয় করতে মার্কেটে/বিভিন্ন দোকানে দেখা যায়। অতএব আপনি এই ইউনিক বিজনেস আইডিয়াটি গ্রহণ করতে পারেন । এটা ছিল ছাত্র-ছাত্রীদের ব্যাগ ক্রয়ের এক বিশেষ সময়।


আপনি অবশ্যই জানেন বাংলাদেশের মানুষ অনেক ভ্রমণপিপাসু। তারা ভ্রমণ করতে খুব স্বাচ্ছন্দ বোধ করে।

তারা বিভিন্ন সময়/মৌসুমী ভ্রমণ করে থাকে দূর-দূরান্তে। বিশেষ করে শীতের মৌসুমে, শীত যখন চলে যায় হালকা হালকা গরম পড়তে শুরু করে, বসন্তকালে ইত্যাদি সময় বেশি ভ্রমণ করে থাকে।

এছাড়া দুই ঈদ, বিভিন্ন দিবসেও তারা দূর-দূরান্তে tour গিয়ে থাকে। আর প্রত্যেকটি ভ্রমণে অবশ্যই কাপড় জিনিসপত্র ইত্যাদি বহন করতে হয়, আর সেগুলো বহন করার জন্য অবশ্যই ব্যাগের প্রয়োজন বোধ হবে।

বিশেষ করে শীতের মৌসুমে কোন জায়গায় সফর করতে হলে বেশি কাপড় এর প্রয়োজন , বেশি কাপড় বহন করার জন্য বেশি ব্যাগ এর প্রয়োজন হয়।

এছাড়াও আপনি লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন প্রতিটি পরিবার/মহল্লায় থেকে এমন কেউ নেই যে, প্রবাসে যাচ্ছে না।

প্রবাসে যাওয়ার জন্য অবশ্যই ব্যাগের প্রয়োজন। অতএব আপনি যদি এই লাভবান ব্যবসা করতে চান, আপনাকে তেমন কষ্ট করতে হবে না,

কোন স্কুল-কলেজ/যেখান দিয়ে মানুষ বেশি চলাচল করে এমন একটি জায়গায় একটি দোকান নিয়ে ফেলুন এবং বিভিন্ন আইটেমের ব্যাগ সংরক্ষনে রাখুন,

দামি কম দামি সব কোয়ালিটির ব্যাগ সংরক্ষণ করুন। ইনশাআল্লাহ আপনি একটি লাভবান ব্যবসা করতে পারবেন।

৮. ইউনিক বিজনেস আইডিয়া হলো অনলাইনে মাছ বিক্রি করা

ইউনিক বিজনেস আইডিয়া
ইউনিক বিজনেস আইডিয়া

মানুষের ব্যস্ততা দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে, দেশ ও জাতির উন্নয়নের এই যুগে, পরিবারের অধিকাংশ সদস্য চাকুরীজীবী / ব্যবসায়ী হওয়ার কারণে দেখা যায় তারা মাছ ক্রয় করতে সক্ষম হয়ে ওঠে না, ব্যস্ততার কারণে।

আপনি চাইলে তাদের নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় মাছ তাদেরকে সেল করে, তাদের থেকে বহু টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

এর জন্য আপনাকে বেশি কষ্ট করতে হবে না, প্রতিদিন বিভিন্ন আরদ/আপনার নিকটস্থ আরদ থেকে মাছ ক্রয় করে তাদের পছন্দের মাছটি সেল করতে পারেন।

৯. অনলাইন বিজনেস আইডিয়া হলো অনলাইন ফার্মেসি ব্যবসা

আপনি লক্ষ করলে দেখতে পাবেন এমন কোন পরিবার নেই যে, সেখানে কেউ অসুস্থ না। প্রত্যেক পরিবারেই কেউ না কেউ অসুস্থ।

আর প্রত্যেক অসুস্থ ব্যক্তির জন্য‌ই ঔষধ প্রয়োজন। এই আধুনিক যুগে পরিবারের অধিকাংশ সদস্য ব্যবসা বাণিজ্য/চাকরিতে ব্যস্ত থাকার কারণে ঔষধ কেনার তেমন সময় পায়না।

আপনি যদি তাদের প্রয়োজনীয় ঔষধ তাদের বাড়িতে সেল করতে পারেন, সেখান থেকে বহু টাকা অর্জন করতে পারবেন।

প্রথমদিকে সুনির্দিষ্ট এরিয়া বা আবাসিক এলাকাগুলোতে ঔষধ সেল করা শুরু করতে পারেন। যাতে করে আপনি খুব দ্রুত ডেলিভারি দিতে সক্ষম হন।

এরপর ধীরে ধীরে লোক বাড়িয়ে ব্যবসাকে বড় করতে পারবেন। এই পদ্ধতিতে আপনি একটি লাভজনক ব্যবসা করতে সক্ষম হবেন।

১০. ইউনিক বিজনেস আইডিয়া হলো চায়ের ক্যাফ

সারাদিন বিভিন্ন কাজ কর্মে ব্যস্ত থাকার পর পড়ন্ত বিকেলে ক্লান্তি দূর করার জন্য সকালেই প্রায় চায়ের কাপে ঠোঁট ডুবাতে পছন্দ করে।

আপনি চাইলে অল্প টাকায় একটি লাভজনক ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। এর জন্য প্রথমে আপনাকে একটি মনোরম পরিবেশে অথবা এমন জায়গা যেখানে মানুষের সচরাচর চলাফেরা হয় সেখানে দোকান দিতে হবে।

এরপর দোকানকে খুব সুন্দর ভাবে ডেকোরেশন করতে হবে, যাতে লোকেরা মনমুগ্ধকর পরিবেশ ক্লান্তি দূর করতে পারে।

এরপর আপনি যে সকল আইটেমগুলো রাখবেন সেগুলো হলো: সাধারণ চা, green tea, milk tea, লেবু চা, ইত্যাদি। আপনি চাইলে স্বল্প টাকায় এমন একটি লাভজনক ব্যবসা শুরু করতেন।

পরিশেষে বলব : উপরে ইউনিক বিজনেস আইডিয়া সম্পর্কে আলোচনা করলাম । যদি ভালো লাগে তাহলে জানাবেন । ধন্যবাদ ।

আরো পড়ুন : বর্তমানে সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা ১৫টি

Leave a Reply

Your email address will not be published.

one + 11 =