কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো প্রফেশনাল ভাবে ?

 আপনি কি মনে মনে ভাবছেন কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো ? বর্তমানে জনপ্রিয় মাধ্যম হল ইউটিউব। প্রতিদিন ইউটিউব এর হাজার হাজার ভিডিও দেখা হয়।

মানুষ বর্তমানে ইউটিউব এর ভিডিও দেখতে পছন্দ করে। এই সুযোগটা কাজে লাগিয়ে প্রচুর লোক ইউটিউব থেকে প্রতিমাসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছে।

অতএব আপনিও এ সুযোগটা কাজে লাগাতে পারেন। এর জন্য অবশ্যই আপনাকে একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলতে হবে।

আজ আপনার প্রশ্নও তথা কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো এর উত্তর দিব। পাশাপাশি ইউটিউব থেকে কিভাবে ইনকাম করতে পারবেন সেটাও বলবো।

যাতে করে ইউটিউব এর ব্যাপারে কোন বিষয় অস্পষ্ট না থাকে। সমস্ত বিষয়ে স্পষ্ট হয়ে যায়।

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো

এখানে ইউটিউব সম্পর্কে যাবতীয় বিষয়ে আলোচনা করা হবে। পাশাপাশি ইউটিউব থেকে কিভাবে ইনকাম করা যায় এবং সাবস্ক্রাইব বাড়ানো যায় সেটাও আলোচনা করা হবে।

ইউটিউব চ্যানেল কি ?

এমন একটি ভিডিও প্লাটফর্ম যেখানে ভিডিও আপলোড করার জন্য কোন একটি প্রোফাইল তৈরি করা হয় সেটাকে ইউটিউব চ্যানেল বলে।

ইউটিউব চ্যানেল খুলতে কি কি প্রয়োজন ?

ইউটিউব চ্যানেল খুলতে তিনটা জিনিস প্রয়োজন।

  • ইন্টারনেট লাগবে।
  • একটি জিমেইল অ্যাকাউন্ট লাগবে।
  • মোবাইল নাম্বার লাগবে।

কম্পিউটার দিয়ে কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো ? 

আপনার একটি জিমেইল একাউন্ট লাগবে। ওই জিমেইল অ্যাকাউন্ট লগইন থাকতে হবে।

এরপর গুগলে লিখে ছার্চ দিবেন youtube.com লিখে। এরপর উপরে রাইট কর্নারে থাকা প্রোফাইল আইকন অপশনে ক্লিক করবেন।

এরপর মাই চ্যানেল নামক অপশনে ক্লিক করবেন। সেখানে দুইটি বক্স দেখাবে। আপনার চ্যানেলের নামের প্রথম এবং দ্বিতীয় অংশ লিখে পূর্ণ করবেন।

এরপর ক্রিয়েট নামক অপশনে ক্লিক করবেন। এভাবে আপনার চ্যানেল খোলা হয়ে যাবে।

মোবাইল দিয়ে কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো ?

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো
কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো

আপনি যদি মোবাইল দিয়ে ইউটিউব চ্যানেল খুলতে চান এর জন্য একটা জিমেইল একাউন্টে লগইন থাকতে হবে।

তারপর আপনি ইউটিউব অ্যাপটি ডাউনলোড করবেন প্লে স্টোর থেকে অথবা অন্যান্য অপশন থেকে। তারপর ইউটিউব অ্যাপে প্রবেশ করতে হবে।

এরপর একদম উপরে রাইট কর্নার থেকে আপনার প্রোফাইল পিকচারের উপর ক্লিক করুন যদি জিমেইল একাউন্টে প্রোফাইল পিকচার দিয়ে থাকেন।

যদি না দিয়ে থাকেন ওখানে আপনার নামের প্রথম অক্ষর দেখাবে । সেটার উপর ক্লিক করুন। তারপর my channel নামে একটি অপশন দেখাবে। সেখানে ক্লিক করবেন।

সেখানে Use YouTube us একটি লেখা দেখাবে। এর নিচে দুটি বক্স দেখাবে সেখানে আপনার চ্যানেলের নাম লিখতে হবে।

প্রথম বক্সে চ্যানেলের নামের প্রথম অংশ আর দ্বিতীয় বক্সে চ্যানেলের নাম এর দ্বিতীয় অংশ লিখতে হবে। এরপর create channel ক্লিক করবেন।

এভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল খোলা হয়ে যাবে। আশাকরি আপনার প্রশ্ন তথা কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো এর উত্তর পেয়েগেছেন ।

এবার আপনি বিভিন্ন রকম ডিজাইন করতে পারবেন। এরপর creator studio ও customise channel নামক দুইটা অপশন পাবেন।

সুতরাং আপনি যদি creator studio নামক অপশনে ক্লিক করেন। তাহলে এখান থেকে আপনি চ্যানেলের আইকন , ব্যাকগ্রাউন্ড ছবি , ডেস্ক্রিপশন ইত্যাদি যোগ করতে পারবেন।

আর যদি customise channel অপশনে ক্লিক করেন তাহলে চ্যানেলের সেটিংস , ভিডিও ম্যানেজার, কয়টা সাবস্ক্রাইব হলো ইত্যাদি নানান বিষয় দিতে পারবে।

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো দ্বিতীয় আরো একটি

অর্থাৎ ২টি ইউটিউব চ্যানেল যদি খুলতে চান এক্ষেত্রে , আপনি মোবাইলে খুলতে চান অথবা কম্পিউটারে খুলতে চান দুনোটার একই নিয়ম। প্রথমত আপনাকে আপনার জি-মেইল অ্যাকাউন্টে লগইন থাকতে হবে।

এরপর প্রথমে আপনাকে যেকোন ব্রাউজার এ গিয়ে youtube.com / account এই শব্দগুলো লেখে সার্চ দিতে হবে। তারপর add or manage your channel (s) এই লেখাটি দেখতে পারবেন।

এই লেখার উপর ক্লিক করবেন । সেখানে ক্রিয়েট চ্যানেল নামক একটি লেখা আছে ওখানে ক্লিক করবেন।

এরপর আগের নিয়মে আপনার চ্যানেলের নাম দিয়ে চ্যানেল ক্রিয়েট করে ফেলুন। এভাবেই আপনার নতুন আরেকটা চ্যানেল তৈরি হয়ে যাবে।

ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করার নিয়ম

এতক্ষণ জানলাম কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো । এখন জানব আপলোড করার নিয়ম । ভিডিও আপলোড করা অনেক সহজ। এখানে আমি মোবাইল এবং কম্পিউটার দোনোটার ভিডিও আপলোড করার নিয়ম সম্পর্কে আলোচনা করব।

মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও আপলোড করার নিয়ম

যখনই আপনি আপনার ইউটিউব নামক অ্যাপে ঢুকবেন। অবশ্যই আপনার ইমেইল আইডিতে লগইন থাকতে হবে। ইউটিউব অ্যাপ এ প্রবেশ করার পর দেখবেন মাঝখানে একটি প্লাস চিহ্ন রয়েছে।

ওই প্লাস চিহ্নে ক্লিক করবেন। তারপর আপলোড ভিডিও নামক একটা অপশন আছে সেখানে ক্লিক করবেন।

তারপর যে ভিডিওটি আপনি আপলোড করতে চাচ্ছেন সেটা সিলেক্ট করবেন । এরপর ভিডিও এর ডেসক্রিপশন , টাইটেল, ট্যাগ ইত্যাদি দিবেন। তারপর আপলোড অপশনে ক্লিক করবেন। এভাবেই আপনার ভিডিও আপলোড হয়ে যাবে।

কম্পিউটারে ইউটিউব ভিডিও আপলোড করার নিয়ম

প্রথমত আপনি ইউটিউব চ্যানেলে প্রবেশ করবেন। উপরে ডান পাশে একটি ভিডিও আইকন রয়েছে। ভিডিও আইকনে ক্লিক করবেন।

তারপর select files অপশনে ক্লিক করবেন। তারপর আপনি যে ভিডিওটি আপলোড করতে চাচ্ছেন সেটা সিলেক্ট করে দিবেন।

এরপর আপনার ভিডিও এর ক্যাটাগরি , টাইটেল , ট্যাগ, দেস্ক্রিপশন ইত্যাদি দিবেন। তারপর নেক্সট বাটনে ক্লিক করবেন।

সেখানে দুইটি অপশন দেখাবে এড কার্ডস ও ইন্ড স্কিন । আপনি যদি এই দুইটি দিতে চান তাহলে দিতে পারেন। এরপর নেক্সট বাটনে ক্লিক করবেন।

এরপর দেখাবে আপনার ভিডিওটা কপিরাইট কিনা । তারপর নেক্সট বাটনে ক্লিক করবেন। এরপর পাবলিক সিলেক্ট করবেন।

তারপর সেভ অপশন এ ক্লিক করবেন। এভাবে আপনার কম্পিউটারে ভিডিও আপলোড হয়ে যাবে।

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফাই করব ?

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো
কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো

ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফাই করা অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। যদি আপনি ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফাই না করেন তাহলে অনেকগুলো কাজ করতে পারবেন না। যেমন :

  • কাস্টম থাম্বেল যোগ করতে পারবেন না।
  • 15 মিনিটের বেশি ভিডিও আপলোড করতে পারবেন না।
  • লাইভ করতে পারবেন না

এর জন্য অবশ্যই আপনাকে ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফাই করতে হবে।

ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফাই করা একদম সহজ।

ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফাই করার নিয়ম।

প্রথমত আপনার জিমেইল একাউন্টে লগইন থাকতে হবে। এরপর আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেলে ঢুকবেন। এরপর উপরের ডান কর্নারে ক্লিক করবেন।

সেখানে সেটিংস নামক একটি অপশন রয়েছে। ঐ জায়গায় ক্লিক করবেন । তারপর চ্যানেল অপশনে ক্লিক করবেন।

তারপর আপনি আপনার মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভেরিফাই করবেন। আরেকটি বিষয় : নাম্বার দিয়ে ভেরিফাই করার সময় প্রথমত আপনার দেশ সিলেট করবেন । এরপর text me the verification code নামাক অপশনে ক্লিক করবেন।

এরপর আপনার মোবাইল নাম্বার দিবেন। তারপর সাবমিট অপশনে ক্লিক করবেন। তখন আপনার মোবাইলে একটি ভেরিফিকেশন কোড আসবে এ কোড টা এখানে দিয়ে দিবেন। এভাবেই আপনার ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফাই হয়ে যাবে।

ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব এবং ভিউ বাড়ানোর উপায়

আমি এমন কিছু পদ্ধতি বলবো যদি এগুলো ফলো করেন তাহলে খুব সহজেই এবং অল্প সময়ে আপনার সাবস্ক্রাইব এবং ভিউ বাড়বে।

  • নিয়মিত ভিডিও আপলোড করতে হবে
  • প্রতিদিন এক সময় আপলোড করার চেষ্টা করবেন।
  • নিয়মিত কমেন্ট পড়ুন এবং তাদের রিপ্লাই দিন।
  • ভিডিওতে এসইও করার চেষ্টা করুন
  • চমৎকার চমৎকার ভিডিও আপলোড করার চেষ্টা করুন।

ইউটিউবে কোন কোন বিষয় নিয়ে ভিডিও তৈরী করলে ভালো হবে ?

  • টেকনোলজি নিয়ে ভিডিও আপলোড দিতে পারেন
  • শিক্ষামূলক ভিডিও
  • ফুড নিয়ে ভিডিও
  • টিউটিরিয়াল ভিডিও
  • ব্লগ

প্রাথমিকভাবে আপনি যদি নতুন হয়ে থাকেন তাহলে এসব বিষয় নিয়ে ভিডিও বানাতে পারেন।

ইউটিউব থেকে ইনকাম

ইউটিউব থেকে আপনি অনেক ভাবেই ইনকাম করতে পারেন। গুগল এডসেন্স থেকে। এটা অধিকাংশ লোকই করে এবং প্রসিদ্ধ একটি বিষয়।

গুগল এডসেন্স থেকে আয় করার জন্য অবশ্যই আপনাকে ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন করতে হবে।

ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজ করার জন্য কিছু শর্ত রয়েছে :

  • এক বছরের মধ্যে কমপক্ষে 1000 সাবস্ক্রাইবার হতে হবে
  • এক বছরের মধ্যে 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম হতে হবে।
  • কোন ধরনের কপিরাইট ভিডিও থাকা যাবে না।
  • ইউটিউব এর নিয়ম ভাঙা যাবে না

আপনি যদি সমস্ত নিয়ম মানতে পারেন তাহলে আপনার চ্যানেলটি মনিটাইজ হয়ে যাবে। এরপর আপনি গুগল এডসেন্স থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

আরো অনেক ভাবেই ইউটিউব থেকে ইনকাম করা যায়।

  • স্পন্সর এর মাধ্যমে ইনকাম করা যায়
  • এফিলিয়েট মার্কেটিং করে ইনকাম করা যায়

ইত্যাদি আরো নানানভাবে ইউটিউব থেকে ইনকাম করা যায়।

পরিশেষে বলব : উপরে কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো সম্পর্কে আলোচনা করলাম। যদি আরো কিছু জানার থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করবেন। ভালো লাগলে জানাবেন। ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন : ডিজিটাল মার্কেটিং কিভাবে শিখব ?

Leave a Reply

Your email address will not be published.

14 − 9 =