মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া ১৪টি – ২০২২

আপনি কি মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া সম্পর্কে জানতে চান ? তাহলে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য।

প্রতিটি মানুষেরই টাকার প্রয়োজন। চায় সে ছেলে হোক অথবা মেয়ে হোক। বর্তমান সময়ে  ছেলেদের সাথে সাথে মেয়েরাও ব্যবসা করছে ।

কিন্তু বর্তমানে সঠিক ব্যবসার উপায় না পাওয়ার কারণে সফল হতে পারছে না অনেক মেয়েরা। কেননা ব্যবসায় সফলতা অর্জন করা এতটা সহজ নয় যেরকম আমরা মনে করি।

সফলতা অর্জন করার জন্য সঠিক গাইডলাইন বা সঠিক আইডিয়া প্রয়োজন পড়ে। তাই আজ আমি মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া দিব যার ফলে অবশ্যই মেয়েরা ব্যবসার ক্ষেত্রে সফলতা অর্জন করতে পারবে।

মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া

Table of Contents

মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া – ২০২২

আমি এখানে মেয়েদের ব্যবসার জন্য এমন ১৪টি আইডিয়া দিব যেগুলো প্রত্যেকটি ট্রাস্টেট এবং  গ্রহণযোগ্য।

যদি এগুলো ফলো করে আপনি ব্যবসা করেন তাহলে অবশ্যই আপনি অল্প সময়ে সফলতা লাভ করতে পারবেন।

সফলতা লাভ করার জন্য  শর্ত হলো আপনাকে পরিশ্রম করতে হবে এবং ব্যবসায় সময় দিতে হবে তাহলে সফলতা আপনার কাছে খুব সহজে ধরা দেবে।

১. মেয়েদের জন্য বিজনেস আইডিয়া হল কুটির শিল্পের ব্যবসা

অর্থাৎ ঘরের মধ্যে যে শিল্পের কাজ করা হয় তাকে কুটির শিল্প বলে।  নানান ধরনের কাজ করে সেগুলো বিক্রি করতে পারেন। ঘরে বসে কুটির শিল্প এর অনেক চাহিদা রয়েছে। বিশেষ করে মহিলারা এসব কাজে দক্ষ।

  •  নকশি কাঁথা । নকশিকাঁথার প্রচুর চাহিদা রয়েছে। কেননা অধিকাংশ মানুষই নকশিকাঁথা পছন্দ করে। অতএব আপনি নকশি কাঁথা তৈরি করে অনলাইনে অথবা বিভিন্ন দোকানে বিক্রি করতে পারেন। এই কাজে যদি আপনি লেগে থাকেন এবং পরিশ্রম করেন তাহলে খুব অল্প সময় আপনি সফলতার মুখ দেখতে পারবেন।
  • নকশি রুমাল। মানুষ নকশাকৃত রুমাল পছন্দ করে। অতএব আপনি হাত দিয়ে রুমালকে বিভিন্ন রকম ডিজাইন করে তা বিক্রি করতে পারেন।
  • বাঁশ দিয়ে বিভিন্ন রকম জিনিস তৈরি করা যায়। যেমন : ঢাকনা, ফুলদানি, কলমদানি, কুলা, ধামা, ঝুড়ি ইত্যাদি। এই জিনিসগুলো কুটির শিল্পের মধ্যে পড়ে। অতএব আপনি বাঁশ দিয়ে এ রকম নানা জিনিস তৈরি করে অনলাইনে বিক্রি করতে পারেন অথবা সরাসরি হাট-বাজারে বিক্রি করতে পারেন।

২. মহিলাদের জন্য ঘরে বসে ব্যবসা হল অনলাইনে জামা কাপড়ের ব্যবসা

বর্তমানে ফেসবুকে অনেক মহিলাদেরকে দেখা যায় তারা বিভিন্ন রকমের মহিলাদের জামা বিক্রি করছে অর্থাৎ থ্রি পিস থেকে শুরু করে মহিলাদের নানান ধরনের জামা দেখিয়ে দেখিয়ে লাইভ করে তারা বিক্রি করছে।

এ ব্যবসা অনেক চাহিদা পূর্ণ। এভাবে প্রচুর জামা কাপড় বিক্রি হয় তাদের। এই ব্যবসায় লাভ অনেক রয়েছে। অতএব আপনিও এ ব্যবসা শুরু করে দিতে পারেন। এ ব্যবসা শুরু করার জন্য কয়েকটি কাজ করতে হবে।

  •  ফেসবুক বিজনেস পেজ খুলতে হবে
  • আনকমন বিভিন্ন ডিজাইনের পোশাক রাখবেন
  • বেশি বেশি লোক দেখার জন্য এড দিতে হবে
  • সরাসরি লাইভে কথা বলবেন
  • ডেলিভারি সিস্টেম ভালো রাখতে হবে

এই সমস্ত কাজ করলে আশা করি দ্রুত সফলতা অর্জন করবেন।

৩. ঘরের খাবার বিক্রি করে মেয়েদের অনলাইন ব্যবসা

অর্থাৎ আপনি আপনার ঘরে নানা রকমের আকর্ষণীয় খাবার তৈরি করে তা বিক্রি করতে পারেন।

একবার যদি আপনার খাবার লোকদের পছন্দ হয়ে যায় তাহলে খুব দ্রুত আপনার ব্যবসা সব জায়গায় ছড়িয়ে পড়বে। ফলে আপনি খুব দ্রুত সফলতা অর্জন করবেন।

তাই ঘরে বসেই আপনার আপনি নানা রকম আইটেম তৈরি করে তা বিক্রি শুরু করে দেন। এ ব্যবসা প্রসারের সবচেয়ে অন্যতম মাধ্যম হলো ইন্টারনেট।

তাই আপনি ইন্টারনেটের মাধ্যমে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে আপনার ঘরোয়া খাবার বিক্রির ব্যবসা করতে শুরু করে দিতে পারেন।

আরো পড়ুন :-

৪.  হাতের তৈরি পোশাকের ব্যবসা

মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া হলো : থ্রিপিস থেকে শুরু করে নানান রকম পোশাক নিজ হাতে সেলাই করে তা বিক্রি করা‌। এরকম পোশাকের অনেক চাহিদা রয়েছে। কেননা মানুষ এ রকম পোশাক পরিধান করতে পছন্দ করে।

তাই আপনি নিজ হাতে সেলাই করে বিভিন্ন রকম পোশাক তৈরি করতে পারেন এবং তা বিক্রি করতে পারেন। এ ব্যবসায় অনেক লাভ রয়েছে। অতএব আপনি আজই শুরু করে দিতে পারেন  এ ব্যবসা।

৫. বিউটি পার্লারের ব্যবসা

বর্তমান অধিকাংশ মেয়েরাই বিউটি পার্লারে সাজতে পছন্দ করেন। তাই বিউটি পার্লারের অনেক চাহিদা রয়েছে। আপনি বিউটি পার্লারের ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এ ব্যবসায় পুঁজিও রকম লাগে। তবে লাভ অনেক বেশি।

৬.মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া হলো  কাগজ দিয়ে শোপিস তৈরি করে ব্যবসা

মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া
মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া

আপনি কাগজ দিয়ে নানা রকম শোপিস তৈরি করে তা বিক্রি করতে পারেন। প্রতিটা মানুষই শোপিস দিয়ে ঘর সাজাতে চায়। তাই এই শোপিস এর অনেক চাহিদা রয়েছে।

আপনি ইচ্ছা করলে শোপিস এর ব্যবসা করতে পারেন। প্রচার প্রসারের জন্য সোশ্যাল মিডিয়া মাধ্যমকে ব্যবহার করতে পারেন।

তাহলে দ্রুত আপনার ব্যবসার ছড়িয়ে পড়বে এবং দ্রুত আপনি সফলতা অর্জন করতে পারবেন।

৭.   ফ্যাশন ডিজাইনের ব্যবসা

মেয়েদের ঘরে বসে ব্যবসা হলো ফ্যাশন ডিজাইনের ব্যবসা । অর্থাৎ : প্রতিটা মানুষই চমৎকার চমৎকার ডিজাইনকৃত জামা পরিধান করতে পছন্দ করে। তাই ফ্যাশন ডিজাইনের অনেক চাহিদা রয়েছে।

তাই আপনি নানা রকম ডিজাইন করে তা বিক্রি করে ব্যবসা করতে পারেন। এ ব্যবসায় দ্রুত সফলতা অর্জন করা যাবে যদি ঠিকমতো কাজ করেন।

৮.মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া হলো অনলাইনে পড়ানো

বর্তমানে এই ব্যবসার চাহিদা অনেক হয়েছে। কেননা মানুষ অনলাইনের প্রতি ধীরে ধীরে ঝুঁকছে।  অতএব আপনি যে বিষয়ে অভিজ্ঞ সে বিষয়ে একটি এড দিতে পারেন।

তাহলে আপনি প্রচুর ছাত্র-ছাত্রী পেয়ে যাবেন। অর্থাৎ যারা পড়তে ইচ্ছুক এরকম অনেক ছাত্র-ছাত্রী পাবেন।

আপনি তাদেরকে জুম অ্যাপ অথবা অন্যান্য ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ক্লাস করাতে পারেন। তবে একটি বিষয় খেয়াল রাখবেন :

আপনি ওই টপিক বা ঐ বিষয় নিয়েই ক্লাস করবেন যে বিষয়ে আপনি অভিজ্ঞ। এর দ্বারা আপনার ছাত্র-ছাত্রী ধীরে ধীরে বাড়তে থাকবে  আপনার অভিজ্ঞতা দেখে। আর অভিজ্ঞতা না থাকলে অবশ্যই আপনি লজ্জিত হবেন এবং ধীরে ধীরে ছাত্র-ছাত্রী কমে যাবে।

৯. ড্রপ শিপিং এর ব্যবসা

ড্রপ শিপিং বলা হয় এমন একটি ব্যবসাকে যেখানে আপনি অনলাইন দোকানের মালিক। কিন্তু আপনার কাছে কোন পণ্য নেই। যখন ক্রেতা কোন পণ্যের অর্ডার করবে তখন আপনি ওই পণ্যের মালিকের কাছে অর্ডার করবেন।

তারা সরাসরি ক্রেতার কাছে ওই পণ্যটি পৌঁছে দিবে। এ ব্যবসাটি অনেক সহজ। তাই আপনি এখনই এ ব্যবসা শুরু করে দিতে পারেন। এ ব্যবসা করার ক্ষেত্রে পুঁজি খুব কম লাগে। এই ব্যবসা মেয়েদের জন্য সবচেয়ে পারফেক্ট।

১০. মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া হলো অনলাইনে কোর্স করা

বর্তমানে অনেকেই নানান বিষয়ে কোর্স তৈরি করছে।  তা অল্প টাকায় বিক্রি করছে। এসব কোর্সের প্রতি মানুষের চাহিদা অনেক।

তাই আপনিও এই সুযোগটা কাজে লাগাতে পারেন। আপনি যে বিষয়ে পারদর্শী সে বিষয়ে কোর্স তৈরি করে তা বিক্রি করে ব্যবসা করতে পারেন।

১১. ইউটিউব চ্যানেল খুলে ব্যবসা

মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া
মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া

বর্তমানে অনেক মেয়েরাই ইউটিউব চ্যানেল খুলে প্রচুর টাকা ইনকাম করছেন। আপনিও এ ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

যেমন অনেকেই রান্নাবান্নার ভিডিও বানাচ্ছে আবার অনেকেই রিঅ্যাকশন ভিডিও বানাচ্ছে আবার অনেকেই ব্লগিং ভিডিও বানাচ্ছে ইত্যাদি নানান রকম ভিডিও বানিয়ে ভালো সফলতা অর্জন করছে।

অতএব আপনি যদি ইউটিউব এর মাধ্যমে ব্যবসা করতে চান তাহলে আপনি কয়েকটি বিষয় মাথায় রেখে কাজ শুরু করে দিতে পারেন।

  1. এমন বিষয়ে ভিডিও বানানো শুরু করবেন যে বিষয়ে আপনার অভিজ্ঞতা রয়েছে।
  2. নিয়মিত ভিডিও আপলোড করার চেষ্টা করবেন।
  3. আপনার পছন্দের টপিক খুঁজে ভিডিও বানানো শুরু করবেন যাতে করে পরবর্তীতে বিরক্ত না লাগে
  4. শিক্ষামূলক ভিডিও বানানোর চেষ্টা করবেন যাতে করে মানুষ উপকৃত হয়।

এসব বিষয়ে ফলো করে যদি আপনি ইউটিউব এর মাধ্যমে ভিডিও বানিয়ে ব্যবসা শুরু করেন তাহলে খুব দ্রুতই সফলতা অর্জন করতে পারবেন।

১২. মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া হলো ব্যায়াম শিখানো

ধীরে ধীরে মানুষের শরীরের প্রতি যত্ন নেওয়ার চাহিদা বাড়ছে। পুরুষের সাথে সাথে বর্তমানে মহিলারাও শরীর চর্চা করছে।

অতএব আপনার যদি ব্যায়ামের ব্যাপারে অভিজ্ঞতা থাকে তাহলে আপনি মহিলাদেরকে ব্যায়াম শিখিয়ে বা ব্যায়াম করিয়ে ভালো টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

এই ব্যবসায় ইনভেস্ট খুবই কম। এর জন্য শুধু একটি জায়গার ব্যবস্থা করবেন তারপর শুধু আপনার ইনকাম হবে।

১৩. ডাটা এন্ট্রির কাজ করতে পারেন

এই কাজটি অনেক সহজ। প্রতিটি মেয়েই এই কাজটি করতে সক্ষম। যদি আপনার ডাটা এন্ট্রির ব্যাপারে অভিজ্ঞতা না থাকে তাহলে ইউটিউবে প্রচুর ভিডিও পেয়ে যাবেন সেগুলো দেখে আপনি কাজের উপর দক্ষতা অর্জন করতে পারেন।

বড় বড় মার্কেটপ্লেসে ডাটা এন্ট্রির কাজ প্রচুর পাওয়া যায়। অতএব আপনি নির্দ্বিধায় শিখে এ কাজটি করতে পারেন।

১৪.মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া হলো কনটেন্ট রাইটিং করা

আপনি যদি লেখালিখিতে পারদর্শী হন এবং লেখালেখি করতে ভালোবাসেন। তাহলে আপনি খুব সহজেই কনটেন্ট রাইটিং করে প্রতিমাসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারেন।

এই কাজটি প্রতিটি মেয়ের জন্য সহজ। কেননা লেখালেখি করা কোন কঠিন বিষয় নয়। অতএব প্রত্যেকটি মেয়েই এ কাজটি ইচ্ছা করলে পারে।

আপনার যদি অভিজ্ঞতা না থাকে তাহলে আপনি ইউটিউব দেখে লেখার বিভিন্ন ধরন শিখতে পারেন বা সিস্টেমগুলো শিখতে পারেন।

সুতরাং এভাবে আপনি অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারেন। কন্টেন্ট রাইটিং এর উপর প্রচুর কাজ রয়েছে বড় বড় মার্কেটপ্লেসে। অতএব আপনি নির্দ্বিধায় কনটেন্ট রাইটিং করতে পারেন।

পরিশেষে বলব : মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া সম্পর্কে আলোচনা করলাম যদি ভালো লাগে তাহলে জানাবেন। ধন্যবাদ।।

আরো পড়ুন :-

  1. অনলাইনে পণ্য বিক্রয় করে আয় করুন খুব সহজেই
  2. শেয়ার বাজার কিভাবে কাজ করে ?
  3. সেরা ১৬টি পাইকারি ব্যবসার আইডিয়া

Leave a Comment