Home বিজনেস আইডিয়া ছাত্রদের জন্য ব্যবসা আইডিয়া ১২টি যেগুলো খুবই লাভজনক

ছাত্রদের জন্য ব্যবসা আইডিয়া ১২টি যেগুলো খুবই লাভজনক

0

আপনি কি জানতে চান ছাত্রদের জন্য ব্যবসা কি ? বর্তমানে অধিকাংশ ছাত্ররা লেখাপড়ার পাশাপাশি ব্যবসা করতে চায়। কিন্তু সঠিক  আইডিয়া না পাওয়ার কারণে ব্যবসায় সফল হতে পারে না অথবা সঠিকভাবে ব্যবসা করতে পারে না।

আজ আমি এমন কিছু ইউনিক আইডিয়া দেবো যা ছাত্রদের জন্য ব্যবসা করা খুবই সহজ হবে এবং দ্রুত সফলতা অর্জন করতে পারবেন।

ছাত্রদের জন্য ব্যবসা

১/ বই বিক্রয়ের ব্যবসা

লেখাপড়ার পাশাপাশি আপনি বই বিক্রি করতে পারেন। বই বিক্রির ব্যবসা অনেক লাভজনক। পাশাপাশি অনেক সম্মানজনক। তাই আপনি যেখানে পড়ালেখা করেন সেখানেও বই বিক্রি করতে পারেন অথবা যেকোন স্থানে বই বিক্রি করতে পারেন। এটা আপনার ইচ্ছা।

২/ শিক্ষার্থীদের জন্য ব্যবসা হলো খাবারের দোকান

স্কুলের পাশে অথবা যেকোনো স্থানে লেখাপড়ার পাশাপাশি খাবারের দোকান দিয়ে ব্যবসা করতে  পারেন। যেখানে  অল্প পরিসরে খাবার-দাবার বিক্রি করা হবে। যাতে করে লেখাপড়ায় ডিসটাব না হয়। আরেকটি বিষয় অবশ্যই ভাল মানের খাবার তৈরি করতে হবে। তাহলে ব্যবসার চাহিদা বৃদ্ধি পাবে।

৩/ ছাত্রদের জন্য ব্যবসা হিসেবে অনলাইনে ই-কমার্স ব্যবসা করা

বর্তমান সময় মানুষ অনলাইনে প্রতি বেশি ঝুঁকছে। তারা অনলাইনে শপিং করতে পছন্দ করে। তাই আপনি অনলাইনে একটি ই কমার্স সাইট তৈরি করে বিভিন্ন প্রোডাক্ট বিক্রি করতে পারেন।

তবে অবশ্যই ঐ সমস্ত প্রোডাক্ট বাছাই করবেন যেগুলো মানুষের কাছে চাহিদা বেশি। তাহলে আপনি অল্প সময়ে সফলতা লাভ করতে পারবেন।

৪/ ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর ব্যবসা

বর্তমানে বিভিন্ন জায়গায় অনুষ্ঠান হয়। আপনি অনুষ্ঠানের কাজ এর দায়িত্ব নিতে পারেন। এ কাজের অনেক চাহিদা রয়েছে। অতএব আপনি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর দায়িত্ব নিয়ে ব্যবসা করতে পারেন লেখাপড়ার পাশাপাশি। এ ব্যবসায় ইনকাম অনেক বেশি।

৫/ ছাত্রদের জন্য ব্যবসা হলো ফেসবুকে ব্যবসা

অর্থাৎ বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় সোসাল প্লাটফর্ম হচ্ছে আমাদের বাংলাদেশে ফেসবুক। অতএব আপনি নির্দিষ্ট কোনো পণ্য ফেসবুক বিজনেস পেজ এর মাধ্যমে বিক্রি করতে পারে।

খুব সহজেই আপনি সফলতা অর্জন করতে পারবেন। একটু ধৈর্য ধারণ করতে হবে পাশাপাশি লেগে থাকতে হবে।

৬/ ড্রপ শিপিং এর ব্যবসা

আপনি পড়ালেখার পাশাপাশি অনলাইনে ড্রপ শিপিং এর ব্যবসা করতে পারেন। এই ব্যবসায় পুঁজি একেবারে কম লাগে।

কেননা ড্রপ শিপিং হলো এমন একটি ব্যবসা যে ব্যবসায় কোন পণ্য ডেলিভারি দিতে হয়না এবং কোন পণ্য ক্রয় করতে হয়না।

বরং আপনি শুধু অর্ডার গ্রহণ করে আপনার পার্টনার কোম্পানির কাছে দিয়ে দিবেন।

তারপর তারা সবকিছুই করবে। আর আপনি মাঝখান থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

তবে এর জন্য আপনাকে একটি ওয়েবসাইট বানাতে হবে এবং মার্কেটিং করতে হবে। এ ব্যবসায় লাভ অনেক বেশি।

৭/ ছাত্রদের জন্য ব্যবসা হলো অনলাইনে কোর্স বিক্রি করে ব্যবসা

আপনি যদি কোন বিষয়ে পারদর্শী থাকেন। তাহলে ওই বিষয়ে  লেকচার তৈরি করে অনলাইনে কোর্স হিসেবে বিক্রি করতে পারবেন। বর্তমানে এর চাহিদা অনেক বেশি।

তাই অল্প সময়ে অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

তবে এমন বিষয়ে কোর্স তৈরি করবেন যে বিষয়ে মানুষের আগ্রহ আছে। তাহলে খুব দ্রুত সফলতা অর্জন করতে পারবেন।

৮/ কাউকে পড়ানো

এই সিস্টেমটা অনেক আগে থেকে আসতেছে। বর্তমানে অনেক লোকই পড়ালেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ছাত্র-ছাত্রীদেরকে পড়ায়।

এ ক্ষেত্রে আপনার নিজের অভিজ্ঞতা বাড়বে পাশাপাশি ব্যবসা হিসেবে টাকাও ইনকাম করতে পারবেন।

৯/ পোশাক ডিজাইন এর ব্যবসা

আপনি যদি পোশাক ডিজাইন এর ক্ষেত্রে পারদর্শী হন। তাহলে আপনি ডিজাইনের ব্যবসা করতে পারেন। অর্থাৎ  বিভিন্ন পোশাক কোম্পানির কাছে অথবা বুটিকসে বিক্রি করতে পারেন আপনার ডিজাইনটি। এ ব্যবসায় অনেক লাভ আছে।

১০/ ছবি বিক্রি করে ব্যবসা

আপনি যদি ভালো ছবি তুলতে পারেন। তাহলে তা বিক্রি করে  করতে পারবেন। অনলাইনে অনেক কোম্পানি রয়েছে যারা ছবি ক্রয় করে তাদের কাছে বিক্রি করে অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এ ব্যবসার  অনেক চমৎকার।

১১/ ছাত্রদের জন্য ব্যবসা হলো মোবাইল ঠিক করার ব্যবসা

আপনি পড়ালেখার পাশাপাশি মোবাইল ফোন ঠিক করার দোকান দিতে পারেন ।

এ ব্যবসার অনেক চাহিদা রয়েছে। কারণ বর্তমানে সবার হাতে মোবাইল রয়েছে। একটি না একটি সমস্যা হয় মোবাইলে।

তাই আপনি মোবাইল  ঠিক করার দোকান দিয়ে এই ব্যবসাটা শুরু করতে পারেন।

এ ব্যবসায়ও অনেক লাভ  রয়েছে। এজন্য আপনি চার থেকে পাঁচ মাস মোবাইল ফোন ঠিক করার কোর্স করতে পারেন। ফলে এ ব্যাপারে আপনি অভিজ্ঞ হয়ে যাবেন।

আর অভিজ্ঞ লোকের চাহিদা বেশি। তাই সময় নষ্ট না করে এ ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

১২/ মোবাইল রিচার্জ এর ব্যবসা

প্রত্যেকটা মানুষই মোবাইলে রিচার্জ করে। তাই এ ব্যবসায় ও অনেক চাহিদাও রয়েছে। পড়ালেখার পাশাপাশি আপনি এই ব্যবসা করতে পারেন।

একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো : এ ব্যবসায় পুঁজি একদম কম লাগে। তাই খুব সহজেই করা যায়।

এ ব্যবসা করার জন্য সরাসরি আপনি দোকান দিতে পারেন। পাশাপাশি অনলাইনে বিভিন্ন অফার দিয়ে রিচার্জ এর ব্যবসা করতে পারেন।

পরিশেষে বলব : উপরে উল্লেখিত ছাত্রদের জন্য ব্যবসা  সম্পর্কে যদি একটুও ভালো লাগে এবং কোন উপকারে আসে তাহলে অবশ্যই জানাবেন। ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন :-

  1. অনলাইনে পণ্য বিক্রয় করে আয় করুন খুব সহজেই – ২০২১
  2. শেয়ার বাজার কিভাবে কাজ করে ?

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × one =

Exit mobile version