সুবহানাল্লাহ অর্থ কি ও কখন বলতে হয় | সুবহানাল্লাহ এর ফজিলত কি ?

সুবহানাল্লাহ অর্থ কি

আপনি সুবহানাল্লাহ অর্থ কি এ সম্পর্কে জানতে চান ? তাহলে এই আর্টিকেলটা শুধু আপনার জন্য।

সুবহানাল্লাহ এটি খুবই পরিচিত শব্দ। আমরা প্রতিদিন বিভিন্ন ক্ষেত্রে এই সুবহানাল্লাহ কে ব্যবহার করে থাকি। অথচ আমারা অনেকেই এর অর্থ কি এবং কেন ব্যবহার করা হয় এবং কখন ব্যবহার করা হয় এ সম্পর্কে কিছুই জানিনা ?

তাই আজ আমি আপনাদের সুবিধার্থে সুবহানাল্লাহ অর্থ কি এবং এটা কখন বলতে হয় এবং কোথায় বলতে হয় এবং এর ফজিলত ও গুরুত্ব কি ? এ নিয়ে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করব।

সুতরাং এ সম্পর্কে জানতে সম্পূর্ণ লেখাটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। তাহলে আপনি এ সম্পর্কে ভালোভাবে জানতে পারবেন।

সুবহানাল্লাহ অর্থ কি ?

এটা হল আরবি শব্দ। এই শব্দটি মূলত দুইটি অংশ নিয়ে তৈরি হয়েছে।

  • প্রথম অংশ হল : সুবহান । আর এর অর্থ হল : পবিত্র
  • দ্বিতীয় অংশ হল : আল্লাহ। আর এর অর্থ হল : আল্লাহ

এই হিসেবে দুনো অংশ মিলে তৈরি হয়েছে সুবহানাল্লাহ ( سبحان الله ) আর এর অর্থ হল : আল্লাহ পবিত্র।

সুবহানাল্লাহ শব্দের শাব্দিক বিশ্লেষ কি ?

সুবহান শব্দটি মূলত সাবাহুন ( سبح) থেকে এসেছে। আর এর অর্থ হল : মহিমান্বিত করা।

এই হিসেবে ( سبحان الله ) শব্দের পরিপূর্ণ অর্থ হল : আমি আল্লাহকে সকল প্রকার মিথ্যা, দোষ ত্রুটি ও মন্দ থেকে সম্পূর্ণ পবিত্র বলে ঘোষণা করছি।

এই অর্থের দলিল হলো : আল্লাহ তায়ালা কুরআনে বলেন : سبحان الله عما يصفون (সুবহানাল্লাহি আম্মা ইয়াসিফুন। অর্থাৎ তারা যা বর্ণনা করে তার থেকে আল্লাহ তায়ালা পবিত্র।

আরো পড়ুন :

সুবহানাল্লাহ কখন বলতে হয় ?

আমরা অধিকাংশ মানুষই জানিনা এইটা বলার সময় কখন ? অনেকেই এটার পরিবর্তে আলহামদুলিল্লাহ বলে থাকে।

ফলে আমরা নানান সময় হাসি-ঠাট্টার পাত্র হয়ে যাই। তাই আজ আমি সুবহানাল্লাহ কখন বলতে হয় এ নিয়ে বিস্তারিতভাবে তথ্য দিবো।

  • ভালো ভালো কথা শোনার পর সুবহানাল্লাহ বলতে হয়।
  • আল্লাহ তাআলা সুন্দর সুন্দর সৃষ্টি দেখিয়া সুবহানাল্লাহ বলতে হয়।
  • উপর থেকে নিচে নামার সময় বলতে হয়।
  • আল্লাহ তাআলার দয়া এবং রহমতের কথা শোনার পর এটা বলতে হয়।
  • কোন আশ্চর্যজনক কথা শুনলে সে ক্ষেত্রে এটা বলতে হয়।
  • কেউ আল্লাহর ব্যাপারে খারাপ কথা বললে সে ক্ষেত্রেও সুবহানাল্লাহ বলে এটা বোঝানোর যে আল্লাহ তায়ালা ঐ সমস্ত বিষয় থেকে পবিত্র।

ইত্যাদি এ সমস্ত ক্ষেত্রে সুবহানাল্লাহ বলা হয়। আশা করি আপনি বুঝতে পেরেছেন।

সুবহানাল্লাহ এর ফজিলত

  1. রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন যে ব্যক্তি ১০০ বার সুবহানাল্লাহ বলবে তার জন্য এক হাজার নেকী লেখা হবে অথবা তার এক হাজার গুনাহ মাফ করে দেয়া হবে। ( মুসলিম শরীফ এবং মেশকাত শরীফ )
  2. রসুলুল্লাহ সাঃ হযরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু কে বলেন যত বার তুমি সুবহানাল্লাহ বলবে ততটি গাছ জান্নাতে তোমার জন্য রোপণ করা হবে।

সুবহানাল্লাহ’র তাৎপর্য কি ?

এই বাক্যটির অনেক তাৎপর্য রয়েছে।

  • আল্লাহ তাআলার কাছে সুবহানাল্লাহ জিকির অনেক প্রিয়। আর এ বাক্য দ্বারা তিনি অনেক খুশি হন। আল্লাহ তাআলা সুবহানাল্লাহ বাক্যটি নিজের জন্য পছন্দ করেছেন।
  • হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা:) বলেন : সুবহানাল্লাহ এর অর্থ হল : আল্লাহ তাআলা পবিত্র। অর্থাৎ আল্লাহ তায়ালা সমস্ত মন্দ ও সকল ধরনের দোষ ত্রুটি হতে সম্পূর্ণ মুক্ত বা পবিত্র।
  • এই বাক্যটি তারা আল্লাহতালার বড়ত্ব এবং পবিত্রতার বিষয়ে বর্ণনা করা হয়েছে।

সুবহানাল্লাহি ওয়া বিহামদিহি সুবহানাল্লাহিল আজিম এর বাংলা অর্থ কি ?

সুবহানাল্লাহ অর্থ কি

এটা হল আরবি শব্দ। এই শব্দটি মূলত দুইটি অংশ নিয়ে তৈরি হয়েছে।

  • প্রথম অংশ হল : সুবহানাল্লাহি ওয়া বিহামদিহি । আর এর অর্থ হল : মহান বা পবিত্র সেই আল্লাহ এবং তারই জন্য সমস্ত প্রশংসা ।
  • দ্বিতীয় অংশ হল : সুবহানাল্লাহিল আজিম। আর এর অর্থ হল : মহান বা পবিত্র সেই আল্লাহ যিনি সর্বোচ্চ মর্যাদার বা সম্মানের অধিকারী।

এই হিসেবে দুনো অংশ মিলে তৈরি হয়েছে সুবহানাল্লাহি ওয়া বিহামদিহি সুবহানাল্লাহিল আজিম ( سُبْحَانَ اللهِ وَبِحَمْدِهِ سُبْحَانَ اللهِ الْعَظِيمِ ) আর এর অর্থ হল : মহান বা পবিত্র সেই আল্লাহ এবং তারই জন্য সমস্ত প্রশংসা , মহান বা পবিত্র সেই আল্লাহ যিনি সর্বোচ্চ মর্যাদার বা সম্মানের অধিকারী।

সুবহানাল্লাহি ওয়া বিহামদিহি সুবহানাল্লাহিল আযীম পড়ার ফজিলত

এটা হল এমন একটি বাক্য যা পাঠ করলে আমলের দ্বারি পাল্লা অনেক ভারী হবে। পাশাপাশি এটা আল্লাহতালার কাছে অনেক প্রিয়।

এ ব্যাপারে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন : এমন দুটি বাক্য রয়েছে যে বাক্য দুটি বলা সহজ। আর আমলের পাল্লায় অনেক ভারী হবে।

পাশাপাশি আল্লাহর কাছে অনেক প্রিয়। আর সেটা হল : সুবহানাল্লাহি ওয়া বিহামদিহি সুবহানাল্লাহিল আযীম ।

পরিশেষে বলবো : উপরে সুবহানাল্লাহ অর্থ কি এ নিয়ে বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করলাম।

আশা করি আপনি এ ব্যাপারে পরিপূর্ণ ধারণা পেয়েছেন এবং অনেক উপকৃত হয়েছে। অতএব আপনি আপনার বন্ধুবান্ধবদের সাথে শেয়ার করবেন। পাশাপাশি কমেন্ট করে জানাবেন। ধন্যবাদ।

FAQ

সুবহানাল্লাহ সঠিক বানান কি ?

সঠিক বানান হলো : সুবহানাল্লাহ ( سبحان الله ) । এখানে দুইটি শব্দ রয়েছে । সুবহান + আল্লাহ। এই দুটি শব্দ মিলে সুবহানাল্লাহ হয়েছে।

সুবহানাল্লাহ এর উত্তরে কি বলতে হয় ?

এর উত্তরে কোন কিছুই বলতে হয় না। কেননা সুবহানাল্লাহটি কোন আশ্চর্যজনক কথা শুনলে , আল্লাহ তাআলার দয়া এবং রহমতের কথা শোনলে , কোন ভালো কথা শোনলে ইত্যাদি এসব ক্ষেত্রে বলা হয়।

সুবহানাল্লাহি ওয়া বিহামদিহি অর্থ কি ?

সুবহানাল্লাহি ওয়া বিহামদিহি এর অর্থ হল : মহান বা পবিত্র সেই আল্লাহ এবং তারই জন্য সমস্ত প্রশংসা ।

I always like to learn new things and spread them. Therefore, my main goal is to highlight various new topics related to online business, online income, blogging and information technology.

Leave a Comment