নাউজুবিল্লাহ অর্থ কি ও নাউজুবিল্লাহ কখন বলতে হয় ?

আপনি নাউজুবিল্লাহ অর্থ কি এ সম্পর্কে জানতে চান ? তাহলে এই আর্টিকেলটা শুধু আপনার জন্য।

নাউজুবিল্লাহ এটি খুবই পরিচিত শব্দ। আমরা প্রতিনিয়তে বিভিন্ন ক্ষেত্রে এই শব্দিটি ব্যবহার করে থাকি।

অথচ আমারা অনেকেই এর অর্থ কি এবং কখন ব্যবহার করা হয় এবং কেন ব্যবহার করা হয় এ সম্পর্কে কিছুই জানিনা ?

তাই আজ আমি আপনাদের সুবিধার্থে নাউজুবিল্লাহ অর্থ কি এবং এটা কোথায় বলতে হয় এবং কখন বলতে হয় ? এ নিয়ে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করব।

সুতরাং এ সম্পর্কে জানতে সম্পূর্ণ লেখাটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। তাহলে আপনি এ সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জানতে পারবেন।

নাউজুবিল্লাহ অর্থ কি

নাউজুবিল্লাহ অর্থ কি ?

এটা হল আরবি শব্দ। এই শব্দটি মূলত তিনটি অংশ নিয়ে তৈরি হয়েছে।

প্রথম অংশ হল : নাউজু আর এর অর্থ হল : আমি আশ্রয় চাচ্ছি।

দ্বিতীয় অংশ হল : ’ বি ‘ আর এর অর্থ হল : কাছে ।

তৃতীয় অংশ হল : আল্লাহ আর এর অর্থ হল : আল্লাহ ।

এই হিসেবে তিন অংশ মিলে তৈরি হয়েছে নাউজুবিল্লাহ ( نَعُوْذُ بِاللهِ ) আর এর অর্থ হল : আমি আল্লাহর কাছে আশ্রয় চাচ্ছি । অর্থাৎ খারাপ , মন্দ ও অন্যায় কাজ থেকে আমি আল্লাহর কাছে আশ্রয় চাচ্ছি।

আরো পড়ুন : 

নাউজুবিল্লাহ কখন বলতে হয় ?

অধিকাংশ মানুষই জানেনা এইটা বলার সময় কখন ? অনেকে -ই এটার পরিবর্তে আল-হামদুলিল্লাহ বলে থাকে।

ফলে নানান সময় হাসি-ঠাট্টার পাত্র হয়ে যায়। তাই আজ আমি নাউজুবিল্লাহ কখন বলতে হয় এ নিয়ে বিস্তারিতভাবে তথ্য দিবো।

নাউজুবিল্লাহ বলার অনেক স্থান রয়েছে । কয়েকটি স্থান বলা হয়ঃ

  • খারাপ কাজ দেখলে তখন এটা পড়তে হয়।
  • ইসলাম বিরোধী কোন কাজ দেখলে পড়তে হয়।
  • ভুলবশত নিজে কোন খারাপ কাজ করতে শুরু করলে তখন এটা পড়তে হয়।
  • ভুলবশত কোন খারাপ কাজ করে ফেললে তখন এটা পড়তে হয়।
  • ইসলামবিরোধী কোনো খারাপ কাজ শুনতে পেলে তখন নাউজুবিল্লাহ পড়তে হয়।
  • কোন খারাপ কাজের ব্যাপারে কারো কাছ থেকে শুনতে পেলে তখন এটা পড়তে হয়।

আশা করি আপনি নাউজুবিল্লাহ বলার জায়গাগুলো সম্পর্কে ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন ।

নাউজুবিল্লাহ বলার ফজিলত কি ?

যখন কেউ মনোযোগ সহকারে আল্লাহর দিকে মনোযোগী হয়ে নাউজুবিল্লাহ শব্দটি বলে খারাপ কাজ থেকে বিরত রাখার ব্যাপারে আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করবে।

তখন আশা করা যায় আল্লাহ তায়ালা উক্ত খারাপ কাজ থেকে ওই ব্যক্তিকে হেফাজত করবেন।

অনিষ্ঠ থেকে কি রসূলুল্লাহ (সা:) আশ্রয় চেয়েছেন ?

হ্যাঁ সব সময় রাসূল সাল্লাল্লাহু সাল্লাম অনিষ্ট থেকে আশ্রয় চাইতেন। এ ব্যাপারে একটি হাদিস রয়েছে । হাদিস হলোঃ

হযরত আবু হুরায়রা (রাঃ) বর্ণনা করেন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম অদৃশ্যের অনিষ্ট থেকে , শত্রুদের আনন্দ থেকে , দুঃখ পাওয়া থেকে ও বালা মুসিবতের কষ্ট থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করতেন। ( বুখারী শরীফ ও মুসলিম শরীফ)

নাউজুবিল্লাহ মিন জালিক অর্থ কি ?

এটা হল আরবি শব্দ। এই শব্দটি মূলত চারটি অংশ নিয়ে তৈরি হয়েছে।

প্রথম অংশ হল : নাউজু ও দ্বিতীয় অংশ হল : ’ বি ‘’ এবং তৃতীয় অংশ হল : আল্লাহ । আর চতুর্থ অংশ হলো : মিন জালিক । আর এর অর্থ হলো : মন্দ , অন্যায় কাজ ও খারাপ থেকে ।

এই হিসেবে চার অংশ মিলে তৈরি হয়েছে নাউজুবিল্লাহ মিন জালিক ( نَعُوْذُ بِاللهِ مِنْ ذَالِكْ ) এর অর্থ হল : আমি আল্লাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি খারাপ , মন্দ ও অন্যায় কাজ থেকে ।

মোটকথা : যখনই আপনি কোন ইসলামবিরোধী বা খারাপ কোন কাজ দেখবেন তখনই সম্পূর্ণ আল্লাহর দিকে মনোযোগ হয়ে আল্লাহর কাছে নাউজুবিল্লাহ বলে ওই পাপ কাজ হইতে আশ্রয় চাইবেন।

ইনশাআল্লাহ আল্লাহ তাআলা আপনাকে ঐ পাপ কাজ থেকে বিরত রাখবেন। আশা করি আপনি বিষয়গুলো ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন।

পরিশেষে বলবো : উপরে নাউজুবিল্লাহ অর্থ কি এর সম্পর্কে বিস্তারিত ভাবে তথ্য দেওয়া হল। আশা করি আপনি উপকৃত হয়েছেন।

কোন কিছু জানার থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন । পাশাপাশি আপনি আপনার বন্ধু-বান্ধবদের সাথে এই আর্টিকেলটি শেয়ার করবেন । ধন্যবাদ।

FAQ

নাউজুবিল্লাহ মিন জালিক আরবি লেখা কি ?

নাউজুবিল্লাহ মিন জালিক এর আরবি লেখা হলো: نَعُوْذُ بِاللهِ مِنْ ذَالِكْ

নাউজুবিল্লাহ বাংলা অর্থ কি ?

এর বাংলা অর্থ হলো : আমি আল্লাহর কাছে আশ্রয় চাচ্ছি ।

নাউজুবিল্লাহ meaning in english

ইংলিশে নাউজুবিল্লাহ এর অর্থ হলো : We seek refuge in Allah from all these things.

I always like to learn new things and spread them. Therefore, my main goal is to highlight various new topics related to online business, online income, blogging and information technology.

Leave a Comment